একই ভুল ফের না করার প্রত্যয় জোকোভিচের

ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে ভবিষ্যতে আরও সতর্ক থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন বিশ্বের এক নম্বর পুরুষ টেনিস খেলোয়াড়।
novak djokovic
ছবি: রয়টার্স

কোর্টে আবেগ দেখানোর ধরন একেক জনের একেক রকম। মেজাজ নিয়ন্ত্রণে না রাখতে পারার কারণে সবশেষ ইউএস ওপেনে চড়া মূল্য দিতে হয় নোভাক জোকোভিচকে। দুর্ঘটনাক্রমে লাইন জাজকে বল দিয়ে আঘাত করায় ডিসকোয়ালিফাইড হন তিনি। ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে ভবিষ্যতে আরও সতর্ক থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন বিশ্বের এক নম্বর পুরুষ টেনিস খেলোয়াড়।

ইউএস ওপেন থেকে অপ্রত্যাশিতভাবে বিদায় নেওয়া জোকোভিচের সামনে এখন ফ্রেঞ্চ ওপেন। রোল্যাঁ গ্যারোতে প্রথম রাউন্ডের ম্যাচে তার প্রতিপক্ষ সুইডেনের মিকায়েল ওয়াইমার। চলতি বছরের শেষ গ্র্যান্ড স্ল্যামে খেলতে নামার আগে সার্বিয়ান তারকা বলেছেন, ‘অবশ্যই, কোর্টের আশেপাশে বল মারার ক্ষেত্রে আমি বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করব। নিউইয়র্কের যা ঘটেছে, তা এমন একটা ঘটনা, যা আমার মনে থাকবে। অনেক দিন পর্যন্ত সেটা থেকে যাবে। অবশ্যই, একই ভুল যেন দ্বিতীয়বার না করি, তা আমি নিশ্চিত করব।’

ইউএস ওপেনের শিরোপা জয়ের দৌড়ে এগিয়ে রাখা হচ্ছিল অপ্রতিরোধ্য গতিতে চলতে থাকা জোকোভিচকে। কিন্তু আসর থেকে তিনি বিদায় নেন বিস্ময়করভাবে। চতুর্থ রাউন্ডের ম্যাচের প্রথম সেটে ৬-৫ ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় বেশ হতাশ হয়ে পড়েছিলেন। আবেগ নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে পকেট থেকে একটি বল বের করে র‍্যাকেট দিয়ে বেশ জোরের সঙ্গে কোর্টের পেছনের দিকে মারেন তিনি। অপ্রত্যাশিতভাবে সেটা গিয়ে লাগে এক নারী লাইন জাজের গলায়।

১৭টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী ৩৩ বছর বয়সী জোকোভিচ যোগ করেছেন, ‘যা ঘটেছে, তা আমার ও আরও অনেক মানুষের জন্য বিশাল ধাক্কা ছিল। কিন্তু এটাই জীবন, এটাই খেলা। এ ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে। কিন্তু সেটা কোর্টে আমি কেমন অনুভব করি, তার উপর কোনো নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে না বলে আমি মনে করি।’

ইউএস ওপেন থেকে বিদায় নেওয়ার পরপরই ইতালিয়ান ওপেন জিতেছেন ‘জোকার’ খ্যাত তারকা। তবে কোয়ার্টার ফাইনাল চলাকালে নিজের উপর খেপে গিয়ে র‍্যাকেট ভাঙেন তিনি। সাবধানতা অবলম্বন করলেও সামনের দিনগুলোতেও আবেগ প্রকাশে রাশ টানবেন না বলে জানিয়েছেন জোকোভিচ, ‘কোর্টের ভেতরে যতটা সম্ভব কম নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখানোর চেষ্টা করি আমি। কিন্তু এটা ঘটে যায়। সেকারণে আমি নিজের উপর কঠোর হচ্ছি না। যা ঘটেছে, তা মেনে নিয়ে নিজেকে ক্ষমা করে দিয়েছি এবং সামনে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছি।’

Comments

The Daily Star  | English

'Will not spare anyone if attacked'

Quader vows response if any Bangladeshi harmed by Myanmar firing tensions

38m ago