টাইব্রেকারে লিভারপুলকে হারিয়ে ম্যান সিটির সামনে আর্সেনাল

কারাবাও কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে পা রাখল মিকেল আর্তেতার দল।
bernd leno
ছবি: রয়টার্স

বল দখলের পাশাপাশি আক্রমণেও দাপট দেখাল ইয়ুর্গেন ক্লপের লিভারপুল। কিন্তু তাদের সামনে চীনের প্রাচীর হয়ে আবির্ভূত হলেন বার্নড লেনো। নির্ধারিত ৯০ মিনিটে ঝলক দেখানো পর টাইব্রেকারেও প্রতিপক্ষের দুটি শট রুখে দিলেন তিনি। তার নৈপুণ্যে কারাবাও কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে পা রাখল আর্সেনাল।

বৃহস্পতিবার রাতে প্রতিযোগিতার চতুর্থ রাউন্ডের ম্যাচ গোলশূন্যভাবে শেষ হওয়ার পর পেনাল্টি শুটআউটে ৫-৪ ব্যবধানে জেতে মিকেল আর্তেতার দল। আগামী ডিসেম্বরে শেষ আটের লড়াইয়ে তারা মুখোমুখি হবে পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটির।

অ্যানফিল্ডে নির্ধারিত পাঁচটি করে স্পট-কিকে আর্সেনালের মোহামেদ এলনেনি ও লিভারপুলের দিভক ওরিগি প্রতিপক্ষ গোলরক্ষককে পরাস্ত করতে ব্যর্থ হন। আর সাডেন ডেথের শুরুতেই হ্যারি উইলসনের পেনাল্টি ফিরিয়ে নায়ক বনে যান লেনো। এরপর জোসেফ উইলকের শট জালে জড়ালে উৎসবে মাতে গানাররা।

ম্যাচের সপ্তম মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারত অতিথিরা। বাঁ প্রান্ত দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে উইলককে খুঁজে নেন নিকোলাস পেপে। তিনি বল বাড়ান ফাঁকায় থাকা এডওয়ার্ড এনকেটিয়াহকে। কিন্তু প্রথম দফায় পাস নিয়ন্ত্রণে নিতে ব্যর্থ হওয়া এই ইংলিশ ফরোয়ার্ড শট নেওয়ার আগেই গোলপোস্ট ছেড়ে বাইরে এসে লিভারপুলকে রক্ষা করেন গোলরক্ষক আদ্রিয়ান।

এরপর লম্বা সময় পর্যন্ত ম্যাচে আধিপত্য দেখায় স্বাগতিক লিভারপুল। একাদশ মিনিটে মার্কো গ্রুইচ সুযোগ নষ্ট করায় লিড পাওয়া হয়নি তাদের। পর্তুগিজ উইঙ্গার দিয়োগো জোতার ক্রসে পা ছোঁয়ালেও নিশানা ঠিক রাখতে পারেননি এই সার্বিয়ান মিডফিল্ডার।

বিরতির ঠিক আগমুহূর্তে ভাগ্যের জোরে বেঁচে যায় আর্সেনাল। নেকো উইলিয়ামসের নিখুঁত ক্রসে জোতার হেড গোলরক্ষক লেনো ঝাঁপিয়ে পড়ে ফিরিয়ে দিলেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি। বল পেয়ে যান অরক্ষিত তাকুমি মিনামিনো। কিন্তু ছোট ডি-বক্সের ভেতর থেকে জাপানের এই ফরোয়ার্ড নেওয়া শট বাধা পায় ক্রসবারে।

চাপ ধরে রেখে ৫৩তম মিনিটে আবারও লেনোর পরীক্ষা নেয় অলরেডসরা। গ্রুইচের হেড মাটিতে পড়ার পর খুব কাছ থেকে আলতো টোকায় জালে পাঠানোর চেষ্টা করেছিলেন ভার্জিল ভ্যান ডাইক। কিন্তু আর্সেনাল গোলরক্ষককে ফাঁকি দিতে পারেননি। তিন মিনিট পর জোতার জোরালো শট প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডার রব হোল্ডিংয়ের গায়ে লেগে লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

৬৩তম মিনিটে সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেন জোতা। সতীর্থের উঁচু করে বাড়ানো বল প্রথম ছোঁয়ায় নিয়ন্ত্রণে নিয়ে বাঁ পায়ে দারুণ শট নিলেও লেনোকে পরাস্ত করতে পারেননি। পরের মিনিটে উইলসনের কর্নার থেকে গ্রুইচের হেডও অসাধারণ দক্ষতায় ফিরিয়ে দেন তিনি।

ম্যাচের শেষদিকে লিভারপুলের রক্ষণে ভীতি ছড়ায় আর্সেনাল। ৭০তম মিনিটে পেপের ক্রসে অরক্ষিত হোল্ডিংয়ের হেড আদ্রিয়ানকে ফাঁকি দিতে পারেনি। ৮৪তম মিনিটে আইভরিকোস্টের ফরোয়ার্ড পেপেও বল লক্ষ্যে রাখতে পারেননি। এরপর পেনাল্টি শুটআউটে জয় ছিনিয়ে নেয় আর্সেনাল।

Comments

The Daily Star  | English

Why do you need Tk 1,769.21cr for consultancy?

The Planning Commission has asked for an explanation regarding the amount metro rail authorities sought for consultancy services for the construction of a new metro line.

17h ago