বার্সাকে হারিয়ে দিলো গেতাফে

বার্সেলোনার কোচ হওয়ার পর প্রথম হারের স্বাদ নিলেন রোনাল্ড কোমান।
barcelona
ছবি: রয়টার্স

বার্সেলোনার কোচ হওয়ার পর প্রথম হারের স্বাদ নিলেন রোনাল্ড কোমান। যে গেতাফের বিপক্ষে ২০১১ সালের নভেম্বর থেকে লা লিগায় অপরাজিত ছিল কাতালানরা, তাদের কাছেই তিন পয়েন্ট হারাতে হলো তাকে।

শনিবার রাতে গেতাফের মাঠে ১-০ গোলে হেরেছে বার্সেলোনা। জমজমাট লড়াইয়ে ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর দিকে পেনাল্টি থেকে স্বাগতিকদের পক্ষে জয়সূচক গোলটি করেন জেইমে মাতা।

বল দখলে অতিথিদের আধিপত্য থাকলেও সুযোগ তৈরিতে এগিয়ে ছিল লড়াকু পারফরম্যান্স উপহার দেওয়া গেতাফে। তাদের নয়টি শটের চারটি ছিল লক্ষ্যে। বিপরীতে, বার্সেলোনার সাতটি শটের মাত্র একটি ছিল লক্ষ্যে।

তবে ভাগ্যও সহায়তা করেনি বার্সাকে। প্রথমার্ধে লিওনেল মেসির শট পোস্টে লেগে ফিরে আসে। আর ম্যাচের একদম শেষ মুহূর্তে আত্মঘাতী গোল হজম করা থেকে বেঁচে যায় গেতাফে। বল বিপদমুক্ত করতে যাওয়া দলটির অধিনায়ক দিজেনে দাকোনামের হেড বাধা পায় ক্রসবারে।

১৮তম মিনিটে ভালো অবস্থানে থেকেও গোলরক্ষক বরাবর শট নেন নেমানিয়া মাক্সিমোভিচ। এতে এগিয়ে যাওয়া হয়নি গেতাফের, যারা সম্প্রতি নিজেদের নাম পাল্টে রেখেছে ফে (ইংরেজিতে ফেইথ) ফুটবল ক্লাব।

দুই মিনিট পর হতাশায় পুড়তে হয় আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড মেসিকে। সার্জিনো দেস্তের পাসে ডি-বক্সের প্রান্ত থেকে তার বুলেট গতির শট গেতাফে গোলরক্ষককে পরাস্ত করলেও পোস্টে লেগে জালে প্রবেশ করেনি।

২৯তম মিনিটে সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেন ফাঁকায় থাকা ফরাসি ডিফেন্ডার ক্লেমোঁ লংলে। মেসির ফ্রি-কিকে ঠিক পা ছোঁয়াতেই পারেননি তিনি।  পরের মিনিটে আঁতোয়ান গ্রিজমানও হতাশ করেন। পেদ্রির রক্ষণচেরা পাসে গোলরক্ষককে একা পেয়ে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু পোস্টের অনেক উপর দিয়ে বল মারেন এই ফরাসি ফরোয়ার্ড।

৩১তম মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া মাতার শট লক্ষ্যে থাকেনি। ৪২তম মিনিটে মেসির ফ্রি-কিক গোলরক্ষককে কোনো পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি।

৫৬তম মিনিটে লিড নেয় গেতাফে। সফল-স্পট কিকে বার্সা গোলরক্ষক নেতোকে পরাস্ত করেন মাতা। ডি-বক্সে দাকোনাম ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ংয়ের ফাউল শিকার হওয়ায় রেফারি পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়েছিলেন।

পিছিয়ে পড়ে আক্রমণের ধার বাড়ালেও ভালো সুযোগ তৈরি করতে পারছিল না সফরকারীরা। ৬৪তম মিনিটে মেসির ফ্রি-কিকে পিকের হেড লক্ষ্যে থাকেনি। পাঁচ মিনিট পর বদলি আনসু ফাতির দূরপাল্লার শটও ভীতি জাগাতে পারেনি।

৮৩তম মিনিটে ব্যবধান প্রায় দ্বিগুণ করে ফেলেছিল গেতাফে। পাল্টা আক্রমণে কুচো হার্নান্দেজের শট ক্রসবারে লেগে প্রতিহত হয়। এরপর যোগ করা সময়ে ক্রসবারের কল্যাণে নিজেদের জালে বল পাঠানোর শঙ্কা থেকে রক্ষা পান দাকোনাম।

লা লিগায় মোট চার দলের পয়েন্ট ১০ করে। গোল ব্যবধানে শীর্ষে রয়েছে আসরের শিরোপাধারী রিয়াল মাদ্রিদ। পরের তিনটি স্থান যথাক্রমে গেতাফে, কাদিজ ও গ্রানাদার দখলে। চার ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে বার্সার অবস্থান নয়ে।

Comments

The Daily Star  | English

New School Curriculum: Implementation limps along

One and a half years after it was launched, implementation of the new curriculum at schools is still in a shambles as the authorities are yet to finalise a method of evaluating the students.

7h ago