জেকেএনসি সভাপতি ফারুক আবদুল্লাহকে ঈদে মিলাদুন্নবীর নামাজে যেতে বাধা

ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) এর নামাজে যাওয়ার সময় ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহকে বাধা দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে তার দল জম্মু-কাশ্মীর ন্যাশনাল কনফারেন্স (জেকেএনসি)।
Farook_Abdullah.jpg
ছবি: সংগৃহীত

ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) এর নামাজে যাওয়ার সময় ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহকে বাধা দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে তার দল জম্মু-কাশ্মীর ন্যাশনাল কনফারেন্স (জেকেএনসি)।

এক টুইটে ন্যাশনাল কনফারেন্স জানায়, নিজ বাসভবন থেকে বের হওয়ার সময় তাকে বাধা দিয়েছে ভারত প্রশাসন। জেকেএনসি এই ঘটনাকে ধর্মচর্চার ওপর হস্তক্ষেপ বলে মনে করছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, গত বছরের আগস্টে ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদের অধীন জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলুপ্ত হওয়ার পর থেকে বন্দি ছিলেন জেকেএনসি’র সভাপতি ডা. ফারুক আবদুল্লাহ। চলতি বছরের মার্চে করোনাভাইরাস মহামারি ঠেকাতে লকডাউন ঘোষণার কয়েক দিন আগে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়।

টুইটে ন্যাশনাল কনফারেন্স আরও জানায়, ‘জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসন পার্টির সভাপতি ডা. ফারুক আবদুল্লাহর বাসভবন অবরোধ করে রেখেছে এবং হজরতবাল দরগায় নামাজে যাওয়ার সময় তাকে বাধা দেওয়া হয়েছে। ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) এর মতো একটি পবিত্র দিনে এই হস্তক্ষেপের নিন্দা জানাচ্ছে জম্মু-কাশ্মীর এনসি।’

এই ঘটনার সমালোচনা ও নিন্দা জানিয়েছেন জম্মু-কাশ্মীর পিপল’স ডেমোক্রেটিক পার্টির (পিডিপি) প্রধান মেহবুবা মুফতি।

টুইটে তিনি বলেন, ‘ফারুক সাহেবকে ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) এর দিন হজরতবাল দরগায় নামাজে অংশ নেওয়ার সময় বাধা দেওয়া ভারত সরকারের গভীর পীড়াদায়ক চরিত্রেরই বহিঃপ্রকাশ। এটা আমাদের ধর্মীয় চর্চার ক্ষেত্রে মারাত্মক লঙ্ঘন ও অত্যন্ত নিন্দনীয়।’

Comments

The Daily Star  | English

New School Curriculum: Implementation limps along

One and a half years after it was launched, implementation of the new curriculum at schools is still in a shambles as the authorities are yet to finalise a method of evaluating the students.

9h ago