আবার ১ মাসের লকডাউনে ইংল্যান্ড

যুক্তরাজ্যে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় দফা বিস্তার রোধে আগামী বৃহস্পতিবার থেকে এক মাসের লকডাউনে যাচ্ছে ইংল্যান্ড।
UK corona
করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি নিয়ে লন্ডনে ট্রেনে চলাচল করছে মানুষ। ৩০ অক্টোবর ২০২০। ছবি: রয়টার্স

যুক্তরাজ্যে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় দফা বিস্তার রোধে আগামী বৃহস্পতিবার থেকে এক মাসের লকডাউনে যাচ্ছে ইংল্যান্ড।

সে সময় পাব, রেস্তোরাঁ, জিমনেশিয়াম ও অন্যান্য কম প্রয়োজনীয় দোকানগুলো বন্ধ থাকবে। তবে স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় খোলা থাকবে।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন করোনা মোকাবিলায় তার নতুন পরিকল্পনার অংশ হিসেবে এই নির্দেশ দিয়েছেন।

আজ রোববার বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়ে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল হাউস অব কমন্সে এ বিষয়ে বার্তা দিবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিনস বিশ্ববিদ্যালয়ের করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টারের তথ্য মতে, যুক্তরাজ্যে এখন পর্যন্ত ১০ লাখ ১৪ হাজার ৭৯৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং মারা গেছেন ৪৬ হাজার ৬৪৫ জন। মৃত্যুর সংখ্যা বিবেচনায় এটি ইউরোপে সবচেয়ে বেশি।

যুক্তরাজ্যে একদিনে নতুন করে ২০ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা দেশটিতে মৃতের সংখ্যা ৮০ হাজার ছাড়িয়ে যেতে পারে।

প্রধানমন্ত্রীর এই নুতন লকডাউনের ঘোষণার সমালোচনা করেছেন কয়েকজন এমপি ও ব্যবসায়ী নেতা। অন্যদিকে, লকডাউন দিতে দেরি করায় সরকারের সমালোচনা করেছে ব্রিটিশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন।

লকডাউন চলাকালে সুনির্দিষ্ট কারণ ছাড়া বাড়ির বাইরে না যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

ব্যক্তিগত বাগানে বা ঘরের ভেতরে কোনো মিটিং করা যাবে না। তবে ঘরের বাইরে একজন আরেকজনের সঙ্গে দেখা করতে পারবেন।

লকডাউন চলাকালে নির্মাণ কাজ চলবে ও কারখানা খোলা থাকবে।

আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত সরকার ছুটি বাড়াতে পারে এমন ঘোষণা দেওয়ার পাশাপাশি বলা হয়েছে যে কর্মচারীদের বেতনের ৮০ শতাংশ দেওয়া হবে।

Comments

The Daily Star  | English

Small businesses, daily earners scorched by heatwave

After parking his motorcycle and removing his helmet, a young biker opened a red umbrella and stood on the footpath.

1h ago