লালমনিরহাটে স্কুলছাত্রী অপহরণ, পাচার কিংবা মেরে ফেলার আশঙ্কা বাবার

লালমনিরহাটের তিস্তা নদী তীরবর্তী কালমাটি এলাকায় এক স্কুলছাত্রীকে অপহরণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে অপহরণকারীসহ তিন জনের বিরুদ্ধে গতকাল রাতে লালমনিরহাট সদর থানায় একটি মামলা করেছেন।
Monoarul Islam.jpg
অভিযুক্ত অপহরণকারী মনোয়ারুল ইসলাম। ছবি: সংগৃহীত

লালমনিরহাটের তিস্তা নদী তীরবর্তী কালমাটি এলাকায় এক স্কুলছাত্রীকে অপহরণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে অপহরণকারীসহ তিন জনের বিরুদ্ধে গতকাল রাতে লালমনিরহাট সদর থানায় একটি মামলা করেছেন।

অভিযুক্ত অপহরণকারী মনোয়ারুল ইসলাম (২৬) কালমাটি করিম বাজার এলাকার আশরাফ আলীর ছেলে।

পুলিশ জানায়, গত ১৩ নভেম্বর শুক্রবার বিকালে স্থানীয় কালমাটি উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্রী বাড়ির পাশের দোকানে যাওয়ার সময় তাকে জোরপূর্বক মোটরসাইকেলে করে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। অপহরণকারী মনোয়ারুল ওই স্কুলছাত্রীকে বেশ কয়েকমাস ধরে উত্ত্যক্ত করে আসছিলেন।

স্কুলছাত্রীর বাবা জানান, তার পরিবার নদী ভাঙনের শিকার। তিস্তা নদীতে সবকিছু হারিয়ে অন্যের জমিতে আশ্রয় নিয়ে বসবাস করছেন। ঘটনার দিন তার মেয়ে পূজা-অর্চনা করে খাতা-কলম কিনতে বাড়ির পাশের একটি দোকানে যাচ্ছিল।

তিনি বলেন, ‘আমার মেয়েকে ফেরত দেওয়ার কথা বলে অপহরণকারীর পরিবারের লোকজন কালক্ষেপণ করে। পরবর্তীতে মেয়েকে ফেরত না দিয়ে উল্টো আমাদের এলাকা ছেড়ে যেতে হুমকি দেয়।’

‘অপহরণকারীরা মেয়েকে অন্যত্র পাচার কিংবা মেরে ফেলতে পারে’ বলে আশঙ্কা করার কথা জানান তিনি।

লালমনিরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহা আলম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘অপহৃত স্কুলছাত্রীকে অক্ষত উদ্ধার ও ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনতে পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে। অপহরণকারী ও তার পরিবারের লোকজন বর্তমানে পলাতক।’

Comments