চলে গেলেন সাবেক তারকা ফুটবলার বাদল রায়

তিনি লিভার ক্যান্সারসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন।
badal roy
ছবি: সংগৃহীত

মারা গেছেন কিংবদন্তি ফুটবলার বাদল রায়। আজ রোববার (২২ নভেম্বর) বিকেল সাড়ে ৫টায় না ফেরার দেশে চলে যান আশির দশকের মাঠ মাতানো সাবেক এই তারকা। তিনি লিভার ক্যান্সারসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬০ বছর।

গত ৫ নভেম্বর গুরুতর অসুস্থ হয়ে রাজধানীর আজগর আলী হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি হয়েছিলেন বাদল। তবে তার অবস্থার অবনতি হলে ১১ নভেম্বর তাকে নেওয়া হয় স্কয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে। শেষ পর্যন্ত লড়াইয়ে জিততে পারেননি বাদল। ধানমন্ডির বাংলাদেশ মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন দেশের ক্রীড়াঙ্গনের এ প্রিয়মুখ।

বাংলাদেশের ইতিহাসের অন্যতম সেরা ফুটবলার ছিলেন বাদল। ক্লাব পর্যায়ে দুই দশকেরও বেশি সময় তিনি খেলেছেন ঢাকা মোহামেডানের হয়ে। ১৯৭৭ সালে মতিঝিল এলাকার ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটির বিখ্যাত সাদা-কালো জার্সিতে অভিষেক হয়েছিল তার।

খেলোয়াড়ি জীবনের ইতি টানার পর ফুটবল সংগঠক হিসেবেও সুনাম কুড়িয়েছিলেন বাদল। প্রিয় ক্লাব মোহামেডানের কর্মকর্তা ছিলেন তিনি। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সহ-সভাপতি পদেও আসীন ছিলেন।

২০১৭ সালে মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণজনিত কারণে জীবন সংকটাপন্ন হয়ে পড়েছিল বাদল রায়ের। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহায়তায় সিঙ্গাপুরে জটিল অস্ত্রোপচার করানো হয়েছিল তার। তবে এরপর থেকে তার কাজকর্ম ও শারীরিক চলাচল নির্দিষ্ট গণ্ডির ভেতরে সীমাবদ্ধ ছিল।

সবশেষ বাফুফে নির্বাচনে সভাপতি পদে সম্মিলিত পরিষদের প্রার্থী কাজী সালাহউদ্দিনের কাছে পরাজিত হন বাদল। তবে কোনো ধরনের প্রচারণা ছাড়াই তিনি ভোট পেয়েছিলেন ৪০টি।  মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের আবেদন করেও শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন তিনি।

নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পর আক্ষেপ জানিয়ে তিনি বলেছিলেন, ‘সত্যি কথা বলতে কী, আমি পাশ করতে পারলে, অনেক কিছু করতে পারতাম। একটা পরিকল্পনা নিয়ে নামতে পারতাম।’

গত ১৩ আগস্ট করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন বাদল। বাসায় সেবা নিয়ে সে লড়াইয়ে অবশ্য জিতেছিলেন তিনিই। পরে অংশ নেন বাফুফে নির্বাচনে। কিন্তু এবার আর পেরে ওঠেননি দীর্ঘদিন ধরে ফুটবল অঙ্গনের সঙ্গে যুক্ত সাবেক এই খেলোয়াড়।

বাদল রায়ের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। শোক জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। 

Comments

The Daily Star  | English

International Mother Language Day: Languages we may lose soon

Mang Pru Marma, 78, from Kranchipara of Bandarban’s Alikadam upazila, is among the last seven speakers, all of whom are elderly, of Rengmitcha language.

8h ago