কুলাউড়ার খাসিয়াদের ভূমি সমস্যার স্থায়ী সমাধান চায় নাগরিক প্রতিনিধি দল

হামলার আতঙ্কে থাকা মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার ইছাছড়া পুঞ্জির ৫২টি খাসিয়া পরিবারের ভূমি সমস্যার স্থায়ী সমাধান চেয়েছে একটি নাগরিক প্রতিনিধি দল।
মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার ইসাছড়ার পুঞ্জিবাসীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন নাগরিক প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। ছবি: স্টার

হামলার আতঙ্কে থাকা মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার ইছাছড়া পুঞ্জির ৫২টি খাসিয়া পরিবারের ভূমি সমস্যার স্থায়ী সমাধান চেয়েছে একটি নাগরিক প্রতিনিধি দল।

প্রতিনিধি দলে ছিলেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন {বাপা} সিলেটের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম, হবিগঞ্জ বাপার সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল সোহেল, এএলআরডি  এর প্রতিনিধি এ কে এম বুলবুল আহমেদ, নিজেরা করি’র কেন্দ্রীয় কর্মী মিজানুর রহমান, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের প্রতিনিধি এভিলিনা চাকমা প্রমুখ।

গতকাল রোবরার প্রতিনিধি দলের সদস্যরা কুলাউড়া  উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ও মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসকের সঙ্গে দেখা করেছেন।

এর আগে গত শনিবার প্রতিনিধি দল ইসাছড়ার পুঞ্জিবাসীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছে।

প্রতিনিধি দলের সদস্যরা দ্য ডেইলি স্টারকে জানিয়েছেন, পুঞ্জিবাসীদের সঙ্গে একটি মহলের ভূমি নিয়ে বিরোধ চলছে। প্রশাসন জমিটি উদ্ধার করে ভুক্তভোগীদের বুঝিয়ে দিলেও তারা হামলা শিকার হওয়ায় আতঙ্কে রয়েছে।

পুঞ্জিবাসীরা দীর্ঘদিন ধরে বংশপরম্পরায় এখানে বসবাস করে আসছেন। এখন চক্রটি তাদের উচ্ছেদ করতে চাচ্ছে। এই বিরোধের স্থায়ী সমাধানের লক্ষ্যে প্রতিনিধি দলটি পুঞ্জিবাসী, ইউএনও ও জেলা প্রশাসকের সঙ্গে মতবিনিময় করেছে বলেও জানিয়েছেন দলের সদস্যরা।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন {বাপা} সিলেটের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম ডেইলি স্টারকে বলেছেন, ‘আমরা গত সপ্তাহে ইছাছড়া পুঞ্জিতে হামলার প্রতিবাদে সিলেটে মানববন্ধন করেছি। প্রতিনিয়ত বিভিন্ন পুঞ্জিতে সমস্যা হচ্ছে। সরকারকে মনে রাখতে হবে যে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীরা পরিবেশ রক্ষার নিয়ামক।’

হবিগঞ্জ বাপার সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল সোহেল ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘এসব পিছিয়ে পড়া মানুষজন প্রকৃতির মধ্যে বাস করেন। তাদের আতঙ্কের কথা শুনে আমরা এসেছি। এর সমাধানের সূত্র খোঁজার চেষ্টা করছি। মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে যেন আইনের প্রয়োগ করা হয় সংশ্লিষ্টদের কাছে সেই অনুরোধ রাখছি। কোনোরকম সংঘাত যাতে না হয় এজন্য সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। আমরা এর স্থায়ী সমাধান চাচ্ছি।’

মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘প্রতিনিধি দলের সদস্যরা ইসাছড়াপুঞ্জির ব্যাপারে কথাবার্তা বলেছেন। তারা আমাদের কাজের প্রশংসা করেছেন। সেদিনের হামলার ঘটনায় মামলা হয়েছে। আমরা বিষয়টি আইনশৃঙ্খলা মিটিংয়ে আলোচনা করেছি। তাদের আতঙ্কের কারণ নেই।’

Comments

The Daily Star  | English
Land Minister Saifuzzaman Chowdhury

Ex-land minister admits to having properties abroad

Former land minister Saifuzzaman Chowdhury admitted today to having businesses and assets abroad but denied any involvement in corrupt practices related to acquiring those properties

4h ago