মেসিকে অভিযুক্ত করা সেই এজেন্ট ও চাচার সঙ্গে কথাই বলেন না গ্রিজমান

স্বাভাবিকভাবেই গ্রিজমানের কাছের দুইজনের মন্তব্য ফুটবল বিশ্বে সত্য বলে গৃহীত হয়। কিন্তু তাদের সঙ্গে কোনো ধরনের সম্পর্কই নেই বলে জানালেন বিশ্বকাপজয়ী এ ফরাসি।
messi and griezmann
ছবি: টুইটার

কিছুদিন আগে ‘ফ্রান্স ফুটবল’ সাময়িকীর একটি সংবাদে পুরো ফুটবল বিশ্ব নড়েচড়ে ওঠে। বার্সেলোনায় আতোঁয়ান গ্রিজমানের বাজে খেলার পেছনে লিওনেল মেসিকে অভিযুক্ত করেন তার সাবেক এজেন্ট এরিক ওলহাতস ও চাচা ইমানুয়েল লোপেস। স্বাভাবিকভাবেই গ্রিজমানের কাছের দুইজনের মন্তব্য ফুটবল বিশ্বে সত্য বলে গৃহীত হয়। কিন্তু তাদের সঙ্গে কোনো ধরনের সম্পর্কই নেই বলে জানালেন বিশ্বকাপজয়ী এ ফরাসি।

ব্যক্তিগত কারণে ২০১৭ সালে এজেন্ট পরিবর্তন করেন গ্রিজমান। ওলহাতসের জায়গায় তার বোন মাউদ গ্রিজমানকে নিজের এজেন্ট হিসেবে নিযুক্ত করেন তিনি। তখন থেকেই ওলহাতস ও তার মধ্যকার সম্পর্ক শীতল হতে শুরু করে এবং বছরের মাঝামাঝি সময়ে দুই জনের মধ্যে সব সম্পর্কই শেষ হয়ে যায়। সব ভুলে ওলহাতসকে নিজের বিয়েতে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন গ্রিজমান। কিন্তু তার বিয়েতে যোগ দেননি ওলহাতস। এরপর আর তার সঙ্গে সম্পর্ক রাখার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেননি তিনি।

সম্প্রতি ‘ইউনিভার্সো ভালদানো’র সবশেষ প্রকাশনায় সাবেক ফুটবলার জর্জ ভালদানোকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে গ্রিজমান বলেন, ‘সে (ওলহাতস) আমার জীবনের খুব গুরুত্বপূর্ণ একজন ছিল। কিন্তু এখন তার সঙ্গে আমার কোনো সম্পর্ক নেই। যেদিন থেকে আমি বিয়ে করেছি, সেদিন থেকে আমি তার সঙ্গে সম্পর্ক রাখা বন্ধ করে দিয়েছি। আমি তাকে আমার বিয়েতে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলাম। কিন্তু সে আসেনি। যে কারণে তার সঙ্গে আমি আর সম্পর্ক রাখিনি।’

শুধু তা-ই নয়, ওলহাতসের সঙ্গে তার পরিবারের কারোরই যোগাযোগ নেই বলে জানান গ্রিজমান। সবমিলিয়ে বর্তমানে ওলহাতসকে নিজের জন্য ক্ষতিকারক বলে মনে করছেন এ বার্সা তারকা, ‘আমার পিতামাতাও এরিকের সঙ্গে কথা বলে না। তাহলে তার সঙ্গে কে কথা বলেছে? সে প্রচুর ক্ষতি করতে পারে এবং ড্রেসিংরুমে সমস্যা তৈরি করতে পারে।’

এছাড়া চাচা লোপেসের সঙ্গেও তার যোগাযোগ নেই বলে জানান গ্রিজমান, ‘আমার চাচা ফুটবলের কাজকর্ম সম্পর্কে বোঝে না। দিনশেষে সাংবাদিকরা তারই মন্তব্য নিয়েছে! আমি লিওকে বলেছি, আমি তার সঙ্গে এ নিয়ে কখনোই কথা বলিনি। এমনকি আমার চাচার মোবাইল নম্বরও আমার কাছে নেই।’

উল্লেখ্য, ফ্রান্স ফুটবলকে দেওয়া সে সাক্ষাৎকারে সাবেক এজেন্ট ওলহাতস বলেছিলেন, ‘আঁতোয়ান সংগ্রাম করতে থাকা একটি ক্লাবে যোগ দিয়েছে, যেখানকার সবকিছুতেই মেসির মতামত রয়েছে। সে একইসঙ্গে রাজা ও সম্রাট। আঁতোয়ানের আগমনকে সে ভালো চোখে দেখেনি। গত মৌসুমে আঁতোয়ান যখন যোগ দেয়, তখন মেসি তার সঙ্গে কথা বলেনি এবং তাকে পাস দেয়নি। গ্রিজমানের প্রতি মেসির মনোভাব দুঃখজনক... এটা ত্রাসের রাজত্ব। হয় আপনাকে তার সঙ্গে থাকতে হবে কিংবা বিপরীতে।’

আর তার চাচা লোপেসও প্রায় একই ধরনের মন্তব্য করেছিলেন। আর এ বিষয়টি জানার পর বিরক্ত হয়ে মেসি বলেছিলেন, ‘বার্সেলোনায় সবার সমস্যার কারণ আমি, এটা শুনতে শুনতে আমি ক্লান্ত।’

Comments

The Daily Star  | English

Inadequate Fire Safety Measures: 3 out of 4 city markets risky

Three in four markets and shopping arcades in Dhaka city lack proper fire safety measures, according to a Fire Service and Civil Defence inspection report.

3h ago