তুরিনেই বার্সার 'বড় পরিবর্তন' লক্ষ্য করেছিলেন কোমান

গত মৌসুমটা ভালো যায়নি বার্সেলোনার। গত এক যুগে প্রথমবারের মতো শিরোপাশূন্য বছর কাটাতে হয়েছে তাদের। তবে চলতি মৌসুমে দারুণ কিছুর ইঙ্গিত দিচ্ছে দলটি। যদিও লা লিগায় এখনও সে অর্থে নিজেদের মেলে ধরতে পারেনি। তবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে যেন রীতিমতো উড়ছে তারা। পাঁচ ম্যাচে জয় পাঁচটিতেই। আর দলের এমন মানসিকতা তুরিনের মাঠেই দেখতে পেয়েছিলেন কোচ রোনাল্ড কোমান।
ছবি: রয়টার্স

গত মৌসুমটা ভালো যায়নি বার্সেলোনার। গত এক যুগে প্রথমবারের মতো শিরোপাশূন্য বছর কাটাতে হয়েছে তাদের। তবে চলতি মৌসুমে দারুণ কিছুর ইঙ্গিত দিচ্ছে দলটি। যদিও লা লিগায় এখনও সে অর্থে নিজেদের মেলে ধরতে পারেনি। তবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে যেন রীতিমতো উড়ছে তারা। পাঁচ ম্যাচে জয় পাঁচটিতেই। আর দলের এমন মানসিকতা তুরিনের মাঠেই দেখতে পেয়েছিলেন কোচ রোনাল্ড কোমান।

মূলত খেলোয়াড়দের মধ্যে 'বড় পরিবর্তন' সেদিন লক্ষ্য করেছিলেন কোমান। জুভেন্টাসের মতো শক্তিশালী দলকে তাদের মাঠেই ২-০ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছিল বার্সা। তবে ম্যাচের জয়ের ব্যবধানের চেয়ে বড় ছিল তাদের আগ্রাসন। ফরোয়ার্ড মিসের মিছিলে যোগ না দিলে পাঁচ-ছয়টি গোল দেওয়াও অসম্ভব কিছু ছিল না। পুরো ম্যাচেই দাপট ছিল তাদেরই। খেলোয়াড়রা যে এ আসরে ভালো কিছু করতে চায় তা সেদিনই টের পেয়েছিলেন এ ডাচ কোচ।

বুধবার ফেরেঙ্কভারসের বিপক্ষে ৩-০ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা। দলের সেরা তারকা লিওনেল মেসি ছাড়াও অনেক তারকা খেলোয়াড় খেলোয়াড়দের ছাড়াও এমন জয়ে দারুণ খুশী কোচ। আগের ম্যাচেও ডায়নামো কিয়েভকে দ্বিতীয় সারির দল দিয়েই উড়িয়ে দিয়েছিল তারা।

ম্যাচ শেষে তাই নিজের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন কোচ, 'আমি খুবই খুশী। আমি মৌসুমের শুরুতেই খেলোয়াড়দের মধ্যে বড় পরিবর্তন লক্ষ্য করেছিলাম। বিশেষকরে জুভেন্টাসের মাঠে।'

আর পরিবর্তনটা কোথায় তাও ব্যাখ্যা করেছেন কোমান, 'পরিবর্তনটা আসলে দলটি ম্যাচে অনেক কার্যকর হয়েছে। মৌসুমের শুরুর তুলনায় এখন বেশ বড় পরিবর্তন হয়েছে। আমাদের যে ক্ষুধা আছে, তা আমাদের প্রমাণ করতে হবে।'

এবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গ্রুপ পর্বের সব ম্যাচেই জয় লক্ষ্য এ কোচের, 'সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোতে পৌঁছনো। তবে ছয়টির মধ্যে ছয়টি ম্যাচ জিতলে একটি ঐতিহাসিক মাইলফলক হবে।'

উল্লেখ্য, সবশেষ ২০০২-০৩ মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বের ছয়টি ম্যাচের ছয়টিতেই জয় পেয়েছিল কাতালান দলটি।

Comments

The Daily Star  | English

Inadequate Fire Safety Measures: 3 out of 4 city markets risky

Three in four markets and shopping arcades in Dhaka city lack proper fire safety measures, according to a Fire Service and Civil Defence inspection report.

5h ago