৮ ঘণ্টা বন্ধের পর শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে চলছে ফেরি

ঘন কুয়াশার কারণে ৮ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া-মাদারিপুরের বাংলাবাজার নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে। বর্তমানে এই নৌরুটে ১৩টি ফেরি চলছে বলে জানিয়েছেন শিমুলিয়া ঘাটের বিআইডব্লিউটিসির ব্যবস্থাপক সাফায়েত আহমেদ।
কুয়াশার কারণে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ফেরি পারাপার ৮ ঘণ্টা বন্ধ থাকায় চার শতাধিক যানবাহন দুই ঘাটে আটকা পড়ে। ছবি: স্টার

ঘন কুয়াশার কারণে ৮ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া-মাদারিপুরের বাংলাবাজার নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে। বর্তমানে এই নৌরুটে ১৩টি ফেরি চলছে বলে জানিয়েছেন শিমুলিয়া ঘাটের বিআইডব্লিউটিসির ব্যবস্থাপক সাফায়েত আহমেদ।

তিনি জানান, কুয়াশার কারণে ৮ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে। ঘাট এলাকায় পণ্যবাহী গাড়ির সংখ্যাই বেশি। ফেরি বন্ধের সময় কয়েকটি ফেরি মাঝ নদীতে নোঙর করে ছিল। ফেরি চালু হওয়ার পর গন্তব্যে চলে গিয়েছে। বর্তমানে নৌরুটে ১৩টি ফেরি চলাচল করছে। তবে ফেরি পারাপার স্বাভাবিক হওয়ায় যাত্রী ও যানবাহনের চাপ কম বলে জানান তিনি।

দুর্ঘটনা এড়াতে মঙ্গলবার রাত ১০টা থেকে আজ বুধবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয় বলেও জানান তিনি।

এদিকে সকাল ৭টার পর থেকে লঞ্চ, স্পিডবোট চলাচলের কথা থাকলেও ঘন কুয়াশার কারণে এসব নৌযানও বন্ধ ছিল।

শিমুলিয়া ঘাটের বিআইডব্লিউটিএর সহকারী পরিচালক মো. শাহদাত হোসেন জানান, ঘন কুয়াশার কারণে সকালে লঞ্চ, স্পিডবোট চলাচল বন্ধ ছিল। পরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় লঞ্চ, স্পিডবোট চলাচল শুরু হলে যাত্রী চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এদিকে দুপুর ২টা থেকে পরদিন দুপুর পর্যন্ত হাজরা পয়েন্ট দিয়ে লঞ্চ চলাচল না করার জন্য জানিয়েছে  পদ্মাসেতু কর্তৃপক্ষ। তবে এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। হাজরা পয়েন্ট দিয়ে লঞ্চ না চললেও আরেকটি নৌপথ থাকায় লঞ্চ বন্ধের কোন সম্ভাবনা নেই বলে জানান শাহদাত হোসেন।

Comments