মেসিতে রক্ষা বার্সেলোনার

লা লিগায় শেষ ম্যাচে নবাগত কাদিজের কাছে হার। এরপর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে ঘরের মাঠে জুভেন্টাসের কাছে নাস্তানুবাদ হওয়া। দুইয়ে মিলে আত্মবিশ্বাস যেন তলানিতে ছিল বার্সেলোনার। তার ছোঁয়া পাওয়া গেল ম্যাচের শুরু থেকেই। একের পর এক সুযোগ পেয়েও জালের দেখা পাচ্ছিল না দলটি। তবে শেষ দিকে লিওনেল মেসির গোলে আরও একটি হোঁচট থেকে রক্ষা পেয়েছে দলটি।
ছবি: রয়টার্স

লা লিগায় শেষ ম্যাচে নবাগত কাদিজের কাছে হার। এরপর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে ঘরের মাঠে জুভেন্টাসের কাছে নাস্তানুবাদ হওয়া। দুইয়ে মিলে আত্মবিশ্বাস যেন তলানিতে ছিল বার্সেলোনার। তার ছোঁয়া পাওয়া গেল ম্যাচের শুরু থেকেই। একের পর এক সুযোগ পেয়েও জালের দেখা পাচ্ছিল না দলটি। তবে শেষ দিকে লিওনেল মেসির গোলে আরও একটি হোঁচট থেকে রক্ষা পেয়েছে দলটি।

রোববার ক্যাম্প ন্যুতে লা লিগায় লেভান্তেকে ১-০ গোলে হারিয়েছে কাতালান ক্লাবটি। ম্যাচের একমাত্র গোলটি করেছেন বার্সা অধিনায়ক মেসি।

তবে ম্যাচের ১২তম মিনিটেই পিছিয়ে যেতে পারতো স্বাগতিকরা। সে যাত্রা দলকে রক্ষা করেন গোলরক্ষক মার্ক-আন্দ্রে টের স্টেগেন। বল নিয়ে ডি-বক্সে ফাঁকায় ঢুকে পড়েছিলেন হোর্হে দে ফ্রুতোস। তবে গোলরক্ষক বরাবর শট নেন তিনি। পা দিয়ে রুখে দেন লেভান্তের সে প্রচেষ্টা। তিন মিনিট পর মার্টিন ব্রাথওয়েটের শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান লেভান্তে গোলরক্ষক আইতর ফের্নান্দেজ।

১৮তম মিনিটে পাল্টা আক্রমণ থেকে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ ছিল লেভান্তে। কিন্তু বাঁ প্রান্ত থেকে উড়িয়ে মেরে সুযোগ হাতছাড়া করে দানি গোমেজ। তিন মিনিট পর দুটি দারুণ সুযোগ নষ্ট হয় স্বাগতিকদের। মেসির ফ্রি-কিক থেকে আতোঁয়ান গ্রিজমানের হেড ঝাঁপিয়ে ঠেকান গোলরক্ষক। আলগা বল ফাঁকায় পেয়েও উড়িয়ে মারেন ক্লেমোঁ লংলে।

৩৮তম মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া জর্দি আলবার ভলি কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান গোলরক্ষক ফের্নান্দেজ। দুই মিনিট পর গ্রিজমানের ভলিও ঝাঁপিয়ে ফেরান এ স্প্যানিশ গোলরক্ষক।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই দলকে এগিয়ে দেওয়ার সুযোগ পেয়েছিলেন মেসি। আলবার সঙ্গে দেওয়া নেওয়া করে যে শট নিয়েছিলেন মেসি, তা ছোট ডি-বক্স থেকে এক খেলোয়াড় ফিরিয়ে দেন। ৬৩তম মিনিটে মেসির শট সহজেই ধরে ফেলেন গোলরক্ষক। ১তম মিনিটে দুরূহ কোণ থেকে মেসির নেওয়া শটও দারুণ দক্ষতায় কর্নারের বিনিময়ে ঠেকিয়ে দেন এ গোলরক্ষক। পরে কর্নার থেকে ফাঁকায় হেড নেওয়ার সুযোগ পেয়েও লক্ষ্যে রাখতে পারেননি ব্রাথওয়েট।

৭৬তম মিনিটে কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায় বার্সেলোনা। ফ্রাঙ্কি ডি ইয়ংয়ের বাড়ানো বল ধরে ডি-বক্সে ঢুকে কোনাকুনি শটে লক্ষ্যভেদ করেন বার্সা অধিনায়ক মেসি। এরপর গোল শোধ করতে বেশ চেষ্টা করেছিল লেভান্তে। বার্সা শিবিরে বেশ চাপও সৃষ্টি করেছিল তারা। কিন্তু গোলের দেখা পায়নি।

এ জয়ে ১১ ম্যাচে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে অষ্টম স্থানে উঠে এলো বার্সেলোনা। ১৩ ম্যাচে ২৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে রিয়াল সোসিয়েদাদ। দুই ম্যাচ কম খেলা অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের পয়েন্টও ২৬। ১২ ম্যাচে ২৩ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে রিয়াল মাদ্রিদ।

Comments

The Daily Star  | English

44 lives lost to Bailey Road blaze

33 died at DMCH, 10 at the burn institute, and one at Central Police Hospital

7h ago