কিশোরী ধর্ষণ: মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ৫ আসামি আপিলের রায়ে খালাস

নেত্রকোণায় ২০০২ সালে এক কিশোরীকে অপহরণ ও সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগের মামলায় নিম্ন আদালতের মৃত্যুদণ্ডের রায়ের বিরুদ্ধে আপিলে খালাস পেয়েছেন পাঁচ আসামি। তাদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় আদালত এ রায় দিয়েছেন।
প্রতীকী ছবি

নেত্রকোণায় ২০০২ সালে এক কিশোরীকে অপহরণ ও সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগের মামলায় নিম্ন আদালতের মৃত্যুদণ্ডের রায়ের বিরুদ্ধে আপিলে খালাস পেয়েছেন পাঁচ আসামি। তাদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় আদালত এ রায় দিয়েছেন।

আপিল ও মামলার ডেথ রেফারেন্সের শুনানি শেষে আজ সোমবার বিচারপতি এস এম এমদাদুল হক ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মোজাম্মেল হক রানা দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, মেডিকেল রিপোর্টে ধর্ষণের কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি, ঘটনার প্রত্যক্ষ সাক্ষী না থাকায় এবং ভুক্তভোগী ও তার সাক্ষীর বিবৃতিতে অসামঞ্জস্য থাকায় এই রায় দিয়ে পাঁচ আসামিকে আদালত খালাস দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপক্ষ অবশ্য হাইকোর্টের এ রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে আবেদন করবে বলেও তিনি জানান।

মামলার নথি অনুযায়ী, ২০০২ সালের ২০ জুলাই নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজিলার কালিকাবর গ্রামে ওই কিশোরীকে অপহরণ ও সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়।

নেত্রকোণার জেলা ও দায়রা জজ আদালত ২০১৫ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি মামলায় পাঁচ জনকে মৃত্যুদণ্ড দেন।

Comments

The Daily Star  | English

Electric vehicles etching their way into domestic automobile industry

The automobile industry of Bangladesh is seeing a notable shift towards electric vehicles (EVs) with BYD Auto Co Ltd, the world’s biggest EV maker, set to launch its Seal model on the domestic market.

8h ago