মৌলভীবাজারে ছাত্রলীগ-যুবলীগের সংঘর্ষে আহত ১০, বড়লেখায় ১৪৪ ধারা

মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলায় পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স থেকে বড়লেখা সরকারি কলেজ পর্যন্ত ১৪৪ ধারা ঘোষণা করেছে প্রশাসন।
Moulvibazar
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলায় পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স থেকে বড়লেখা সরকারি কলেজ পর্যন্ত ১৪৪ ধারা ঘোষণা করেছে প্রশাসন।

আজ বুধবার দুপুরে বড়লেখা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. শামীম আল ইমরান দ্য ডেইলি স্টারকে বলেছেন, ‘গতরাতে পাখিয়ালা চৌমুহনী এলাকায় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। মহান বিজয় দিবসে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ১৪৪ ধারা ঘোষণা করা হয়েছে।’

সূত্র জানিয়েছে, গতরাতে পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর প্রচারণায় ছিলেন বড়লেখা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান হোসেন। অভ্যন্তরীণ কোন্দলে সাংগঠনিক প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে তিনি আহত হন।

এ ঘটনার পর রাত ৮টার দিকে ইমরানের সমর্থক, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন ও উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সামাদ আহমদের সমর্থকরা মুখোমুখি অবস্থান নেন।

রাত ১০টা পর্যন্ত চৌমুহনী এলাকায় তারা দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেন উল্লেখ করে সূত্র আরও জানিয়েছে, সে সময় উভয়পক্ষের প্রায় ১০ জন আহত হন।

বড়লেখা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রতন দেবনাথ ডেইলি স্টারকে বলেছেন, ‘আহতরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।’

Comments

The Daily Star  | English

UN rights chief urges probe on Bangladesh protest 'crackdown'

The UN rights chief called Thursday on Bangladesh to urgently disclose the details of last week's crackdown on protests amid accounts of "horrific violence", calling for "an impartial, independent and transparent investigation"

1h ago