খেলা

দ্বিতীয় দিনে এগিয়ে ভারত

প্রথম দিনে অ্যাডিলেড টেস্টে লড়াইটা হয়েছিল সমানে সমান। জমজমাট লড়াই-ই দেখেছিল সমর্থক। তবে দ্বিতীয় দিনে কিছুটা এগিয়ে আছে সফরকারী ভারত। স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াকে খেলতে দেয়নি তিন সেশনও। যদিও অজি অধিনায়ক বুক চিতিয়ে লড়াই করেছেন। কিন্তু সঙ্গীর অভাবে পেরে ওঠেননি। দিনশেষে অজিদের চেয়ে ৬২ রানে এগিয়ে আছে বিরাট কোহলির দল।
ছবি: রয়টার্স

প্রথম দিনে অ্যাডিলেড টেস্টে লড়াইটা হয়েছিল সমানে সমান। জমজমাট লড়াই-ই দেখেছিল সমর্থক। তবে দ্বিতীয় দিনে কিছুটা এগিয়ে আছে সফরকারী ভারত। স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াকে খেলতে দেয়নি তিন সেশনও। যদিও অজি অধিনায়ক বুক চিতিয়ে লড়াই করেছেন। কিন্তু সঙ্গীর অভাবে পেরে ওঠেননি। দিনশেষে অজিদের চেয়ে ৬২ রানে এগিয়ে আছে বিরাট কোহলির দল।

অবশ্য দিনের শুরুটা ভালো ছিল না ভারতের। আগের দিনের ৬ উইকেটে ২৩৩ রান নিয়ে ব্যাট করতে নেমে এদিন মাত্র ১১ রান যোগ করতে পারে। হারায় শেষ চারটি উইকেট। দিনের শুরুতে তিন বল খেলতেই প্যাট কামিন্সের বলে উইকেটরক্ষকের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন অশ্বিন। পরে স্কোরবোর্ডে ২ রান যোগ করতে ফিরে যান শেষ স্বীকৃত ব্যাটসম্যান ঋদ্ধিমান সাহাও। এরপর আর ৯ রান যোগ করতে বাকি দুটি উইকেটও হারায় দলটি। ফলে প্রথম ইনিংসে ২৪৪ রানে অলআউট হয়ে যায় সফরকারীরা।

আর নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই জাসপ্রিত বুমরাহর তোপে পড়ে অজিরা। দলীয় ২৯ রানেই দুই ওপেনারকে ফিরিয়ে দেন এ পেসার। স্বাগতিক শিবিরে সবচেয়ে বড় ধাক্কাটা দেন রবিচন্দন অশ্বিন। এলবিডাব্লিউর ফাঁদে ফেলেন স্টিভ স্মিথকে। শুধু তাই নয়, ৩৪ রানের ব্যবধানে আরও দুটি উইকেট তুলে নেন এ স্পিনার। ফলে ৭৯ রানে টপ অর্ডারের পাঁচ উইকেট হারিয়ে বড় চাপে পড়ে অস্ট্রেলিয়া।

এরপর মার্নাস লাবুশেন ও টিম পেইন সে চাপ সামলে নেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। ৩২ রানের ছোট একটি জুটিতে ভালোই খেলছিলেন তারা। কিন্তু এরপর তোপ দাগান উমেশ যাদব। লাবুশেনকে ফিরিয়ে জুটি তো ভাঙেনই, তুলে নেন প্যাট কামিন্সকেও। ফলে প্রথম ইনিংসে বড় লিডের স্বপ্ন দেখতে থাকে সফরকারী ভারত।

এরপর অবশ্য মিচেল স্টার্ককে নিয়ে দলের হাল ধরার চেষ্টা করেছিলেন পেইন। কিন্তু পৃথ্বী শয়ের দারুণ তৎপরতায় রানআউট স্টার্ক।

তবে এক প্রান্তে দারুণ লড়াই করেন পেইন। পরে নাথান লায়ন ও জশ হেজেলউডের সঙ্গে ছোট ছোট জুটিতে দলকে ১৯১ রানের স্কোর এনে দেওয়ার মূল কৃতিত্ব অধিনায়কেরই। ৯৯ বলে ৭৩ রানের দারুণ ইনিংস খেলেন পেইন। ১০টি চারের সাহায্যে নিজের ইনিংসটি সাজান তিনি। এছাড়া লাবুশেনের ব্যাট থেকে আসে ৪৭ রান। ভারতের পক্ষে ৫৫ রানের খরচায় ৪টি উইকেট নেন অশ্বিন। ৪০ রানের বিনিময়ে ৩টি উইকেট নেন উমেশ। ২টি শিকার বুমরাহর।

নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ১ উইকেটে ৯ রান তুলে দিন শেষ করে করেছে ভারত। ব্যক্তিগত ৪ রানে কামিন্সের বলে বোল্ড হন পৃথ্বী। ৫ রানে ব্যাট করছেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল। নাইটওয়াচম্যান হিসেবে মাঠে নেমেছেন বুমরাহ। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত প্রথম ইনিংস: ২৪৪ (পৃথ্বি ০, আগারওয়াল ১৭, পুজারা ৪৩, কোহলি ৭৪, রাহানে ৪২, বিহারী ১৬, ঋদ্ধিমান ৯, অশ্বিন ১৫, উমেশ ৬, বুমবাহ ৪*, শামি ০; স্টার্ক ৪/৫৩, হেজেলউড ১/৪৭, কামিন্স ৩/৪৮, গ্রিন ০/১৫, লায়ন ১/৬৮, লাবুশেন ০/৩)।

অস্ট্রেলিয়া প্রথম ইনিংস: ১৯১ (ওয়েড ৮, বার্নস ৮, লাবুশেন ৪৭, স্মিথ ১, হেড ৭, গ্রিন ১১, পেইন ৭৩*, কামিন্স ০, স্টার্ক ১৫, লায়ন ১০, হেজেলউড ৮; উমেশ ৩/৪০, বুমরাহ ২/৫২, শামি ০/৪১, অশ্বিন ৪/৫৫)।

ভারত দ্বিতীয় ইনিংস: ৬ ওভারে ৯/১ (পৃথ্বী ৪, মায়াঙ্ক ৫*, বুমরাহ ০*; স্টার্ক ০/৩, কামিন্স ১/৬)।

Comments