যা না করলে হোয়াইটওয়াশ হবে ভারত, বলছেন গাভাস্কার

৩৬ রানে গুটিয়ে গিয়ে এক পর্যায়ে এগিয়ে থাকা টেস্টে বড় হারের পর দলকে নিয়ে বিশ্লেষণে মজেছেন ভারতের সাবেক তারকারা।
sunil gavaskar
ছবি: এএফপি

৩৬ রানে গুটিয়ে গিয়ে এক পর্যায়ে এগিয়ে থাকা টেস্টে বড় হারের পর দলকে নিয়ে বিশ্লেষণে  মজেছেন ভারতের সাবেক তারকারা। কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান সুনিল গাভাস্কার উপায় বাৎলে দিয়েছেন ফিরে আসার। দলে অন্তত দুটি পরিবর্তনের পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। তার মতে এই পথে না হাঁটলে হোয়াইটওয়াশ হতে হবে ভারতকে।

অ্যাডিলেডে দিবারাত্রির টেস্টে আড়াইদিনে ৮ উইকেটে হেরে যাওয়ার পর কিছুটা সময় পেয়েছে ভারত। অধিনায়ক বিরাট কোহলি ব্যক্তিগত কারণে বাকি সিরিজে না থাকা দায়িত্ব কঠিন সময়টা পার করতে হবে আজিঙ্কা রাহানেকে।

স্পোর্টস টকে অনুষ্ঠানে গাভাস্কার বলছেন এই পরিস্থিতিতে ভারতের ক্রিকেটারদের সবার আগে বদলাতে হবে মানসিকতার ধরণ, ‘মেলবোর্ন টেস্টটা ভালোভাবে শুরু করা উচিত ভারতের। অনেক বেশি ইতিবাচক হয়ে মাঠে নামতে হবে। অস্ট্রেলিয়ার দুর্বল জায়গা তাদের ব্যাটিং।’

‘ভারতের বিশ্বাস করতে হবে বাকি টেস্টগুলোতে তারা ফিরে আসতে পারবে। যদি তারা ইতিবাচক না হতে পারে তাহলে ৪-০ তে সিরিজ হারতে পারে। যদি তারা ইতিবাচক হয়, কেন নয় (ফিরে আসা)। এটা স্বাভাবিক অমন পারফরম্যান্সের পর রাগ বেরুতে পারে।  কিন্তু বুঝতে হবে ক্রিকেটে যেকোনো কিছু হতে পারে। ’

অ্যাডিলেডে প্রথম ইনিংসে ২৪৪ করেছিল ভারত। ব্যাটিংয়ে যাওয়া অস্ট্রেলিয়াকে এক পর্যায়ে দারুণ চেপে রেখেছিল তারা। চরম বিপর্যস্ত অজিদের বাঁচান মারনাশ লাবুশানে আর টিম পেইন। অথচ দুজনেই পেয়েছেন একাধিক জীবন। ১৬ ও ২৬ রানে জীবন পেয়ে লাবুশানে করেন ৪৭। দুই জীবন পেয়ে পেইন করে ৭৩। এই দুজনের ব্যাটে ১৯১ রান করে অস্ট্রেলিয়া। অথচ মনে হচ্ছিল ভারত পেয়ে যাবে দেড়শোর বেশি লিড। কিন্তু তারা শেষ পর্যন্ত পায় ৫৩ রানের লিড। এই জায়গায় অনেক উন্নতির সুযোগ দেখছেন গাভাস্কার,  ‘ক্যাচগুলো ধরতে হবে, ফিল্ডিং পজিশন ঠিকঠাক করা চাই। টিম পেইন আর মারনাস লাবুশানেকে অনেক দ্রুত ফেরানো যেত। সহজেই ১২০ রানের বেশি লিড পাওয়া যেত। একাধিক ক্যাচ মিসের কারণে যা হয়নি। তারা জীবন পেয়ে লিডটা কমিয়ে দেয়।’

প্রথম টেস্টে দুই ইনিংসেই ব্যর্থ ছিলেন ওপেনার পৃথ্বী শ। প্রথম ইনিংসে ২ বলে ০ আর পরের ইনিংসে ফেরেন ৪ বলে ৪ করে। এই তরুণকে মেলবোর্নে আর রাখার পক্ষে না গাভাস্কার। সেই সঙ্গে লোকেশ রাহুলকে ঢুকিয়ে দলে আরেকটি বদল চান তিনি, ‘ভারতের দুটি বদল জরুরী। প্রথমত পৃথ্বী শ’র জায়গায় লোকেশ রাহুলকে খেলাতে হবে ওপেনার হিসেবে। পাঁচ বা ছয় নম্বরে শুভমান গিলকে রাখা দরকার। সে ভালো ছন্দে আছে। যদি আমরা  ভাল শুরু করতে পারি পরিস্থিতি বদলে যাবে।’

২৬ ডিসেম্বর মেলবোর্নে শুরু হবে ভারত-অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় টেস্ট।

Comments

The Daily Star  | English

Broadband internet restored in selected areas

Broadband internet connections were restored on a limited scale yesterday after 5 days of complete countrywide blackout amid the violence over quota protest

5h ago