রাজশাহীতে ১৭ স্বর্ণের বার ছিনতাই ‘পরিকল্পিত’, ছোট ভাই গ্রেপ্তার

রাজশাহী শহরে দুই ভাইয়ের কাছ থেকে ১৭টি স্বর্ণের বার ছিনতাইয়ের ঘটনা পরিকল্পিত বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় মামলার বাদি দ্বিজেন ধরের ছোট ভাই জিতেন ধরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
রাজশাহী শহরে টি স্বর্ণের বার ছিনতাইয়ের ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ। ছবি: সংগৃহীত

রাজশাহী শহরে দুই ভাইয়ের কাছ থেকে ১৭টি স্বর্ণের বার ছিনতাইয়ের ঘটনা পরিকল্পিত বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় মামলার বাদি দ্বিজেন ধরের ছোট ভাই জিতেন ধরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ভাইয়ের কাছ থেকে আত্মসাতের জন্য ছিনতাইয়ের ঘটনা সাজানো হয়েছিল বলে জানিয়েছেন রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দুস।   

শনিবার পুলিশ জিতেন ধরকে (৪৮) গ্রেপ্তার করে। সেইসঙ্গে রাজশাহীর পুঠিয়ায় জিতেনের বাড়ি থেকে ১৬টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করে।

আরএমপির অতিরিক্ত উপকমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান, অপর সোনার বারটি জিতেন বিক্রি করে দিয়েছেন।

স্বর্ণের বারগুলির প্রতিটি ১০ ভরি ওজনের এবং মোট মূল্য ১ কোটি ১২ লাখ টাকা বলে জানায় পুলিশ।

জানা যায়, ফেনীর বাসিন্দা দ্বিজেন ধর জেলার দুটি গহনার দোকান থেকে বাকিতে ১৭টি সোনার বার কেনেন। গত ২১ ডিসেম্বর বারগুলি নিয়ে রাজশাহীর পুঠিয়ায় তার ভাই জিতেনের বাড়িতে এসেছিলেন। পরদিন সকালে দুই ভাই রাজশাহীর এক পূর্ব নির্ধারিত স্বর্ণ ব্যবসায়ীর কাছে বিক্রির জন্য রাজশাহী শহরে নিয়ে যাওয়ার সময় ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। ভদ্রা বাস স্টপ থেকে শহরে যাওয়ার সময় দুটি মোটরসাইকেলে চার জন লোক তাদের পথরোধ করে। অজ্ঞাতনামা চার জন নিজেদের প্রশাসনের লোক পরিচয় দিয়ে তাদের কাছ থেকে স্বর্ণের বার রাখা ব্যাগটি ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

ছিনতাইয়ের ঘটনায় রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের বোয়ালিয়া থানায় মামলা করেন দ্বিজেন ধর।

উপকমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান, তদন্তকালে ছোট ভাই জিতেন ধরের অসংলগ্ন কথায় পুলিশের সন্দেহ হয়। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে তিনি স্বীকার করেন আত্মসাতের উদ্দেশ্যে তিনিই ছিনতাইয়ের ঘটনাটি তার পরিচিত লোকেদের দিয়ে করেছেন।

জিতেনের দেওয়া তথ্যে পুলিশ তার বাড়ি থেকে ১৬টি স্বর্ণের বার খুঁজে পেয়েছে।

জিতেন পুলিশকে জানিয়েছেন, পুঠিয়ায় নিজের বাড়ি তৈরির সময় প্রায় ১ কোটি ৪০ লাখ টাকা ঋণ করেছিলেন। যখন স্বর্ণের বারগুলি সম্পর্কে জানতে পারেন সেগুলো আত্মসাতের জন্য ছিনতাইয়ের ঘটনা পরিকল্পনা করেন। স্বর্ণের বারগুলো পুঠিয়ায় তার বাড়িতে থাকা অবস্থায় সরিয়ে ফেলেন এবং সেগুলোর জায়গায় লোহা ও সিসা রেখে দেন। পরদিন ছিনতাই হওয়ার আগ পর্যন্ত ব্যাগটি তিনি নিজেই বহন করছিলেন।

জিতেন তার এক প্রতিবেশির সহায়তায় আরও তিনজনকে ছিনতাই নাটকের জন্য সহযোগী হিসেবে নেন।

পুলিশ জানিয়েছে যে তারা ছিনতাইয়ের সাথে জড়িত বাকি সদস্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে।

Comments

The Daily Star  | English

Ctg’s Tekpara slum fire guts 80 shanties

At least 80 shanties were burned down in a fire that broke out at a slum at Tekpara in Firingibazar of Chattogram city this afternoon

1h ago