ভুল শুধরে নিল আইসিসি, র‍্যাঙ্কিংয়ের নয়ে বাংলাদেশ

বাংলাদেশের একজন গণমাধ্যমকর্মী ভুল ধরিয়ে দিলে বৃহস্পতিবার র‍্যাঙ্কিং সংশোধন করেছে আইসিসি।
Bangladesh Test Team
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

দুদিন আগের ঘটনা। হালনাগাদকৃত সবশেষ টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশকে দশে ঠেলে দিয়ে নয়ে উঠে এসেছিল আফগানিস্তান। কিন্তু পরে জানা গেছে, ভুলক্রমে র‍্যাঙ্কিংয়ে জায়গা করে নিয়েছিল আফগানরা। সেই ভুল শুধরে নিয়েছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। অর্থাৎ আগের নয় নম্বর অবস্থানে থাকছে বাংলাদেশ। আর র‍্যাঙ্কিংয়েই নেই এই সংস্করণের নবীনতম সদস্য আফগানিস্তান।

টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের পথচলা শুরু হয়েছিল ২০০০ সালের নভেম্বরে। তার প্রায় ১৮ বছর পর সাদা পোশাকে অভিষেক হয় আফগানিস্তানের, ২০১৮ সালের জুনে। দুদিন আগে প্রকাশিত র‍্যাঙ্কিংয়ে দেখা গিয়েছিল, ৫৭ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে দুই ধাপ এগিয়ে নয় নম্বরে রয়েছে আফগানিস্তান। আর বাংলাদেশ ৫৫ রেটিং পয়েন্ট অবস্থান করছে দশে। কিন্তু পুরো বিষয়টি নিয়ে তৈরি হয় ধোঁয়াশা। পরে বাংলাদেশের একজন গণমাধ্যমকর্মী ভুল ধরিয়ে দিলে বৃহস্পতিবার র‍্যাঙ্কিং সংশোধন করেছে আইসিসি।

গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে হালনাগাদকৃত বার্ষিক র‍্যাঙ্কিং প্রকাশ করেছিল আইসিসি। তখন তারা জানিয়েছিল, আফগানিস্তান র‍্যাঙ্কিংয়ে জায়গা পাওয়ার মতো যথেষ্ট টেস্ট খেলেনি। ওই সময় থেকে এখন পর্যন্ত আর কোনো টেস্ট ম্যাচ খেলেনি দলটি। বাংলাদেশও আর সাদা পোশাকে মাঠে নামেনি। তাই মুমিনুল হক-মুশফিকুর রহিমদের র‍্যাঙ্কিংয়ে আফগানদের নিচে নেমে যাওয়াটা ছিল বিস্ময়েরই।

তবে আইসিসি ভুল শুধরে নিলেও স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলার সুযোগ কোথায়? নতুন করে যে নয় দলের র‍্যাঙ্কিং প্রকাশিত হয়েছে, সেখানে বাংলাদেশের অবস্থান তলানিতেই। তাছাড়া, যে আফগানিস্তানের নিচে নেমে যাওয়া নিয়ে এত শোরগোল উঠেছিল, তারা খেলেছে মোটে চারটি টেস্ট। সমান দুটি করে জয় ও হারের স্বাদ নিয়েছে দলটি। তবে বাংলাদেশের সঙ্গে একমাত্র লড়াইয়ে আফগানরা জিতেছিল বিশাল ব্যবধানে। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে নিজেদের মাটিতে বাংলাদেশ হেরেছিল ২২৪ রানের বিশাল ব্যবধানে।

Comments

The Daily Star  | English

Cyclones fewer but fiercer since the 90s

Though the number of cyclones in general has come down in Bangladesh over the years, the intensity of the cyclones has increased, meaning the number of super cyclones has gone up, posing a greater threat to people in coastal areas, a recent study found

2h ago