৯৭৮ ভূমিহীন পরিবারের জন্যে ঘর

মুজিববর্ষ উপলক্ষে লালমনিরহাটে ৯৭৮টি ঘর প্রস্তুত করা হচ্ছে ৯৭৮টি গৃহহীন পরিবারের জন্য। জেলার পাঁচ উপজেলায় সরকারি খাস জমিতে এসব ঘর তৈরির কাজ চলছে পুরোদমে।
লালমনিরহাটে ভূমিহীনদের জন্যে তৈরি করা ঘর। ছবি: স্টার

মুজিববর্ষ উপলক্ষে লালমনিরহাটে ৯৭৮টি ঘর প্রস্তুত করা হচ্ছে ৯৭৮টি গৃহহীন পরিবারের জন্য। জেলার পাঁচ উপজেলায় সরকারি খাস জমিতে এসব ঘর তৈরির কাজ চলছে পুরোদমে।

চলতি মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে এসব ঘর তৈরি শেষ হলে তা গৃহহীনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। সরকারের দেওয়া পাকা ঘরে বসবাস করতে পারবেন ভেবে ভীষণ আনন্দিত ভূমিহীন মানুষগুলো।

বিভিন্ন জনের দখলে থাকা সরকারি খাস জমি উদ্ধার করে সেখানে ভূমিহীন পরিবারগুলোর জন্যে তৈরি করা হচ্ছে পাকা ঘর। মুজিববর্ষ উপলক্ষে তাদের কাছে তুলে দেওয়া হবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ উপহার।

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার গোড়ল গ্রামের ভূমিহীন আজগর আলী (৬০) দ্য ডেইলি স্টারকে বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া উপহার এই পাকা ঘর। আমি মহাখুশি। একসময় আমাদের মাথা গুজবার স্থান ছিল না। এখন আমরা জমির মালিক হবো। পাকা ঘর পাবো।’

‘হামাক খুবই ভালো লাইগবার নাইগছে। হামরা বিল্ডিং ঘরোত থাইকবার পামো। এইল্যা হামরা কোনদিনও স্বপনোত ভাবোং নাই। আল্লাহ হামার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভালো কইরবে,’ বললেন কালীগঞ্জ উপজেলার চলবলা এলাকার ভূমিহীন আনোয়ার আলী।

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রবিউল হাসান ডেইলি স্টারকে বলেছেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া উপহার ঘরগুলোর তৈরির কাজ প্রায় শেষ হয়েছে। সময়মতো এগুলো ভূমিহীন পরিবারগুলোর কাছে হস্তান্তর করা হবে।’

সরকারের নকশা অনুযায়ী কাজের মান ঠিক রেখেই এসব ঘর তৈরি করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সূত্র ডেইলি স্টারকে জানিয়েছে, লালমনিরহাট জেলার পাঁচ উপজেলায় ৯৭৮টি ঘর তৈরির কাজ চলছে পুরোদমে। সদর উপজেলায় ১৫০টি, আদিতমারীতে ১৩০টি, কালীগঞ্জে ১৫০টি, হাতীবান্ধায় ৪২৫টি ও পাটগ্রামে ১২৩টি ঘর তৈরি করা হচ্ছে।

আগামী ১৫ জানুয়ারির আগে এসব ঘর তৈরির কাজ শেষ হবে উল্লেখ করে সূত্র আরও জানিয়েছে, ৩৯৪ বর্গ ফুটের প্রতিটি ঘর তৈরিতে খরচ হচ্ছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা।

লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর ডেইলি স্টারকে বলেছেন, ‘সারা জেলায় জরিপ চালিয়ে ‘ক’ শ্রেণির ৫ হাজার ৮১৩টি ভূমিহীন পরিবারের তালিকা করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রথম ধাপে ৯৭৮টি পরিবার পাচ্ছেন সরকারি পাকা ঘর। বাকি পরিবারগুলোকেও পর্যায়ক্রমে সরকারি ঘর দেওয়া হবে।’

Comments

The Daily Star  | English

US sanction on Aziz not under visa policy: foreign minister

Bangladesh embassy in Washington was informed about the sanction, he says

1h ago