বিদ্বেষ প্রচারের অভিযোগে ‘তাণ্ডব’ নির্মাতাদের বিরুদ্ধে এফআইআর

ভারতের উত্তর প্রদেশের লখনৌ পুলিশ জানিয়েছে, বিদ্বেষ প্রচার ও মানুষের মাঝে অশান্তি সৃষ্টির অভিযোগে সদ্য প্রকাশিত ওয়েব সিরিজ ‘তাণ্ডব’-এর নির্মাতাদের বিরুদ্ধে একটি ফার্স্ট ইনফরমেশন রিপোর্ট (এফআইআর) দায়ের হয়েছে।
ছবি: সংগৃহীত

ভারতের উত্তর প্রদেশের লখনৌ পুলিশ জানিয়েছে, বিদ্বেষ প্রচার ও মানুষের মাঝে অশান্তি সৃষ্টির অভিযোগে সদ্য প্রকাশিত ওয়েব সিরিজ ‘তাণ্ডব’-এর নির্মাতাদের বিরুদ্ধে একটি ফার্স্ট ইনফরমেশন রিপোর্ট (এফআইআর) দায়ের হয়েছে।

আজ সোমবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস বিষয়টি জানায়।

লখনৌয়ের ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (সেন্ট্রাল) সোমেন বর্মা বলেন, ‘রোববার হজরতগঞ্জ থানায় অ্যামাজনের কর্মকর্তা অপর্ণা পুরোহিত, সিরিজের পরিচালক আলী আব্বাস জাফর, প্রযোজক হিমাশু কৃষ্ণ মেহরা, লেখক গৌরব সোলঙ্কির এবং অন্যদের বিরুদ্ধে একটি এফআইআর দায়ের করা হয়।’

হজরতগঞ্জ থানায় পোস্ট করা অভিযোগপত্রে সিনিয়র সাব-ইন্সপেক্টর অমরনাথ যাদব উল্লেখ করেন, তিনি তথ্য পেয়েছেন বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়া কিছু ভিডিও ক্লিপ সমাজের একটি বিশেষ দলের বিরুদ্ধে মানহানিকর। তদন্তে তিনি জানতে পারেন, এই ক্লিপগুলো গত ১৬ জানুয়ারি মুক্তি পাওয়া ওয়েব সিরিজ ‘তাণ্ডব’ থেকে নেওয়া। তাই এর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি (আইপিসি) এবং আইটি আইনের ১৫৩এ, ২৯৫, ৫০৫ ও ৪৬৯ ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।

ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘চার সদস্যের একটি পুলিশ দল বিষয়টি তদন্ত করছে এবং অভিযোগটি সত্য প্রমাণিত হলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

সীতাপুর ও রায় বারেলি জেলাতেও ‘তাণ্ডব’-এর বিরুদ্ধে একই ধরনের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

এদিকে, বহুজন সমাজ পার্টির প্রধান মায়াবতী এক অনুষ্ঠানে এই ওয়েব সিরিজ থেকে আপত্তিকর অংশ সরিয়ে ফেলার দাবি জানিয়েছেন। এক টুইটে তিনি বলেন, ওয়েব সিরিজের কিছু দৃশ্যে প্রতিবাদ নিবন্ধন করা হচ্ছে, যা ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করে। তাই আপত্তিকর অংশগুলো সরিয়ে ফেলা সঠিক হবে।

মির্জাপুর পুলিশ জানিয়েছে, মির্জাপুর জেলায় ধর্মীয় আবেগ ও সামাজিক বিশ্বাসকে আঘাত করার অভিযোগে ওয়েব সিরিজ ‘তাণ্ডব’ ও অ্যামাজন প্রাইমের প্রযোজকের বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়েছে।

এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, অরবিন্দ চতুর্বেদীর নামের এক ব্যক্তির অভিযোগের ভিত্তিতে মামলাটি নথিভুক্ত করা হয়েছে। তিনি দাবি করেছেন, ওয়েব সিরিজটিতে তার ধর্মীয় অনুভূতি এবং সামাজিক বিশ্বাস ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

মির্জাপুরের পুলিশ সুপারিন্টেন্ডেন্ট অজয় সিং হিন্দুস্তান টাইমসকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Comments

The Daily Star  | English

Fixed expenses to eat up 40pc of next budget

The government has to spend about 40 percent of the next budget on subsidies, interest payments, and salaries and allowances of government employees, which will limit its ability to spend on social safety net, health and education.

45m ago