সেই রায়হান যোগ দিলেন ব্র্যাকের মাইগ্রেশন প্রোগ্রামে

করোনা মহামারি চলাকালে মালয়েশিয়া সরকারের অভিবাসীদের প্রতি নিষ্ঠুর আচরণ নিয়ে গণমাধ্যমে বক্তব্য দিয়ে গ্রেপ্তার ও কারাভোগ করা বাংলাদেশি তরুণ রায়হান কবির বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাকের মাইগ্রেশন প্রোগ্রামে যোগ দিয়েছেন।
রায়হান কবিরের হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেন ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রামের প্রধান শরিফুল হাসান। ছবি: সংগৃহীত

করোনা মহামারি চলাকালে মালয়েশিয়া সরকারের অভিবাসীদের প্রতি নিষ্ঠুর আচরণ নিয়ে গণমাধ্যমে বক্তব্য দিয়ে গ্রেপ্তার ও কারাভোগ করা বাংলাদেশি তরুণ রায়হান কবির বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাকের মাইগ্রেশন প্রোগ্রামে যোগ দিয়েছেন।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রামের প্রধান শরিফুল হাসান রায়হানের হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেন ।

মালয়েশিয়া থেকে রায়হানকে দেশে ফেরত পাঠানোর পর, প্রবাসীদের অধিকার রক্ষায় কাজ করার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছিলেন তিনি।

আজ নিয়োগপত্র পাওয়ার পর রায়হান কবির বলেন, ‘প্রবাসীরা রেমিট্যান্স যোদ্ধা। বাংলাদেশের অর্থনীতিতে তাদের অর্জন অনেক। তারপরেও তারা প্রায়ই দুর্দশায় পড়েন। এই প্রবাসীদের জন্য কিছু করার ইচ্ছা ছিল অনেক আগে থেকেই। মালয়েশিয়াতেও সেটা করেছি। এখনো করব।'

গত বছরের ৩ জুলাই আল জাজিরার ‘লকডআপ ইন মালয়েশিয়ান লকডাউন-১০১ ইস্ট’ শীর্ষক এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। সেখানে মালয়েশিয়ায় থাকা প্রবাসী শ্রমিকদের প্রতি লকডাউন চলাকালে দেশটির সরকারের নিপীড়ণের চিত্র তুলে ধরা হয়।

ওই প্রতিবেদনে বাংলাদেশিদের পক্ষে রায়হান কবির বক্তব্য দেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে মালয়েশিয়ার পুলিশ ২৪ জুলাই তাকে গ্রেপ্তার করে। পরে, মালয়েশিয়া সরকার তাকে নির্দোষ হিসেবে ২২ আগস্ট বাংলাদেশে ফেরত পাঠায়।

শরিফুল হাসান জানান, রায়হান সবসময় প্রবাসীদের জন্য কাজ করতে চেয়েছিলেন। ব্র্যাক মাইগ্রেশন পোগ্রামে তিনি সেই সুযোগ পাবেন। প্রবাসীদের বিমানবন্দরে জরুরি সেবা দিতে বিমানবন্দরে ব্র্যাকের তথ্য ও সেবা কেন্দ্রে রায়হান কাজ করবেন।

Comments

The Daily Star  | English
biman flyers

Biman does a 180 to buy Airbus planes

In January this year, Biman found that it would be making massive losses if it bought two Airbus A350 planes.

6h ago