খেলা

উইকেট, কন্ডিশন দেখে আক্ষেপ পেস বোলিং কোচের

বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিন শেষে টস জিতে ব্যাটিং নেওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজের রান ৫ উইকেটে ২২৩। ৯০ ওভারের মধ্যে জায়েদ করেছেন ১৮ ওভার। ৮ ওভার করেন সৌম্য। এই ২৬ ওভারেই তারা পেয়েছে গুরুত্বপূর্ণ ৩ উইকেট। বাকি ৩ স্পিনার মিলে সারাদিনে ৬৪ ওভার বল করে উইকেট এসেছে আর দুটি।
Ottis Gibson
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

মিরপুর টেস্টের প্রথম দিনে উইকেট পড়েছে মোট ৫টি। এরমধ্যে তিনটিই এসেছে পেস বোলিংয়ে। দিনের সফল বোলার হিসেবে ২ উইকেট নিয়েছেন একমাত্র বিশেষজ্ঞ পেসার আবু জায়েদ রাহি। এমনকি অনিয়মিত পেস বল করে সৌম্য সরকারও পেয়ে গেছেন ১ উইকেট। এমন অবস্থায় একাদশে দুই পেসার না নিয়ে খেলায় কিছুটা আক্ষেপ ঝরল পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসনের।

বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিন শেষে টস জিতে ব্যাটিং নেওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজের রান ৫ উইকেটে ২২৩। ৯০ ওভারের মধ্যে জায়েদ করেছেন ১৮ ওভার। ৮ ওভার করেন সৌম্য। এই ২৬ ওভারেই তারা পেয়েছে  গুরুত্বপূর্ণ ৩ উইকেট।

বাকি ৩ স্পিনার মিলে সারাদিনে ৬৪ ওভার বল করে উইকেট এসেছে আর দুটি। দুটি উইকেটই নিয়েছেন তাইজুল ইসলাম। প্রথম দিনে অন্তত বড় ব্যবধানেই পিছিয়ে স্পিনাররা।

বাংলাদেশ ঘরের মাঠে এখন পেসারদের জন্য না খেলালেই বাঁচে, এমন অ্যাপ্রোচই দেখা যায়। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আগের একমাত্র টেস্টে খেলছিলেন দুই পেসার আবু জায়েদ আর ইবাদত হোসেন। তবে তার আগে আফগানিস্তানের বিপক্ষে কোন পেসারই রাখা হয়নি একাদশে। ২০১৮ সালেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এক টেস্টে পেসারবিহীন নেমেছিল দল। আরেক টেস্টে খেলেন এক পেসার।

এবার চট্টগ্রামে একমাত্র পেসার হিসেবে খেলেছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। ঢাকায় সে জায়গা নেন জায়েদ। ব্যাটসম্যান সৌম্যকে একাদশে রেখে তাকেও দেওয়া হচ্ছে দ্বিতীয় পেসারের তকমা।

দিনের খেলা শেষে ধারাভাষ্যকার ইয়ান বিশপ এসব নিয়ে কথা বলেন বাংলাদেশের পেস বোলিং কোচ গিবসনের সঙ্গে। গিবসন প্রচ্ছন্নভাবে তার কথায় অন্তত দুই পেসার না থাকার আক্ষেপই করলেন, ‘একাদশে আরও দু-একজন পেসার খেলাতে পারলে পেস বোলিং কোচ হিসেবে আমার ভাল লাগত। কিন্তু বাস্তবতার কারণেই ব্যাপারটা কঠিন, সে কারণেই এক পেসার রেখেছি। তবে আজকের কন্ডিশন প্রমাণ করেছে মাঝে মাঝে বাংলাদেশে দুই পেসার নিয়ে খেলার সাহস দেখাতে হবে।’

চট্টগ্রামে মোস্তাফিজ আর ঢাকায় জায়েদকে খেলানোর ব্যাখ্যাও দিয়েছেন পেস বোলিং কোচ,  ‘চট্টগ্রামে উইকেটে ফিজকে বেশি কার্যকর মনে হয়েছিল আমাদের। কারণ চতুর্থ ও পঞ্চম দিনে তার কাটার ধরবে বলে ভেবেছিলাম। প্রথম ইনিংসে দুটো দারুণ উইকেট নিয়েছিল। কিন্তু ফলো থ্রুতে উইকেটে পা পড়া নিয়ে একটা সমস্যা হয়েছে। আমরা ওটা নিয়ে কাজ করছি।’

‘মিরপুরে অনেক স্যুয়িং পাওয়া যায়। রাহি স্যুয়িং বোলার। উইকেট না পেলেও নিয়ন্ত্রণ ধরে রান দেয় না। এই বদল তাই দরকার ছিল।’

Comments

The Daily Star  | English
Dhaka brick kiln

Dhaka's toxic air: An invisible killer on the loose

Dhaka's air did not become unbreathable overnight, nor is there any instant solution to it.

13h ago