ভারতে কৃষক আন্দোলন

লাল কেল্লায় সংঘর্ষ: ২০০ জনের ছবি প্রকাশ, গ্রেপ্তার ১৫২

ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে কৃষকদের ট্র্যাক্টর র‌্যালিতে সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িত ২০০ জনের ছবি প্রকাশ করেছে দিল্লি পুলিশ।
INDIA.jpg
গত ২৬ জানুয়ারি দিল্লির লাল কেল্লায় ট্র্যাক্টর নিয়ে ঢুকে পড়েন আন্দোলনরত কৃষকরা। সেসময় তাদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। ছবি: রয়টার্স

ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে কৃষকদের ট্র্যাক্টর র‌্যালিতে সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িত ২০০ জনের ছবি প্রকাশ করেছে দিল্লি পুলিশ।

আজ শনিবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, পুলিশ সেদিনের সংঘর্ষের ঘটনার ভিডিওগুলো স্ক্যান করে ছবিগুলো নেওয়ার কথা জানিয়েছে।

কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে আন্দোলনরত কৃষকরা ২৬ জানুয়ারি দিল্লির লাল কেল্লায় ট্র্যাক্টর মিছিল করে। সেদিন ট্রাক্টর চালিয়ে প্রতিবাদকারীদের অনেকেই লাল দুর্গের স্মৃতিসৌধে প্রবেশ করেছিলেন। তাদের মধ্যে কেউ কেউ গম্বুজগুলোতে ধর্মীয় ও আনুষঙ্গিক পতাকা উত্তোলন করেন। একপর্যায়ে কয়েক হাজার বিক্ষোভকারীর সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়।

গতকাল শুক্রবার এক পুলিশ কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা ছবিগুলো প্রকাশ করেছি ও জড়িতদের শনাক্ত করতেও শুরু করেছি।’

কৃষকদের আন্দোলনে সংঘর্ষের ঘটনার তদন্ত সম্পর্কে জানতে চাইলে দিল্লি পুলিশ কমিশনার এসএন শ্রীবাস্তব বলেন, ‘কৃষকদের বিক্ষোভে জড়িতদের মধ্যে তদন্ত করে ১৫২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘কেউ কেউ হয়তো তদন্তে সাহায্য করতে চাইবে না। তবে এটা তাদের ইচ্ছার উপর নির্ভর করছে না।’

তবে, কৃষক নেতারা তাদের কাছে পাঠানো নোটিশের জবাব দিয়েছেন বলে জানান তিনি।

গত ২৬ জানুয়ারি লাল কেল্লায় সহিংসতার ঘটনায় গোয়েন্দা সংস্থার ব্যর্থতা আছে কি না? জানতে চাইলে দিল্লি পুলিশ কমিশনার বলেন, ‘আমি মনে করি না গোয়েন্দা সংস্থার কোনো ব্যর্থতা ছিল। এরকম ঘটনা ঘটার আশঙ্কা ছিল, এ কারণেই ব্যারিকেড দেওয়া হয়েছিল এবং তাদেরকে থামতে বলা হয়েছিল। আমরা তাদের (কৃষকদের) কয়েকটি শর্তে ট্রাক্টর সমাবেশ করার অনুমতি দিয়েছিলাম কিন্তু তারা নির্ধারিত পথ অনুসরণ না করে আমাদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে, সহিংসতার আশ্রয় নিয়েছে। পুলিশ এখানে তার দায়িত্ব খুব ভালোভাবেই পালন করেছে।’

ভারতে নতুন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে গত নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া কৃষকদের আন্দোলন এখনো চলছে। দিল্লির সীমান্তে এখনো কৃষকরা অবস্থান করছেন।

Comments

The Daily Star  | English

Personal data up for sale online!

A section of government officials are selling citizens’ NID card and phone call details through hundreds of Facebook, Telegram, and WhatsApp groups, the National Telecommunication Monitoring Center has found.

26m ago