সেনাবিরোধী বক্তব্য: জাতিসংঘে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত বরখাস্ত

সেনাবিরোধী বক্তব্য দেওয়ায় জাতিসংঘে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে বরখাস্ত করেছে দেশটির সামরিক সরকার।
Myanmar UN envoy
জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে বক্তব্য শেষে সেনা অভ্যুত্থানের প্রতিবাদে তিন আঙুলে স্যালুট দেন মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত কিয়াউ মো তুন। ছবি: বিবিসির ভিডিও থেকে নেওয়া

সেনাবিরোধী বক্তব্য দেওয়ায় জাতিসংঘে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে বরখাস্ত করেছে দেশটির সামরিক সরকার।

আজ রোববার বিবিসি জানিয়েছে, গত শুক্রবার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে সাধারণ পরিষদে বক্তব্য দেওয়ার একদিন পর জাতিসংঘে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত কিয়াউ মো তুনকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

গত শুক্রবার রাষ্ট্রদূত কিয়াউ মো তুন ১৯৩ সদস্যের সাধারণ পরিষদে ক্ষমতাচ্যুত সু চি সরকারের পক্ষে কথা বলেন। তিনি মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ এবং দেশটির জনগণের সুরক্ষা ও নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছিলেন।

কিয়াউ মো তুন বলেন, ‘নিরপরাধ জনগণের ওপর অত্যাচার বন্ধ করা এবং গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে আরও কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া দরকার।’

বার্মিজ ভাষায় বক্তব্য দেওয়ার সময় তাকে বেশ সংবেদনশীল ও আবেগপ্রবণ হতে দেখা যায়। ভাষণের পর তিনি সেনা অভ্যুত্থানের প্রতিবাদে তিন আঙুলে স্যালুট দেন এবং বলেন, ‘আমাদের গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার উদ্দেশ্যই বিজয়ী হবে।’

গতকাল মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন জানিয়েছে, কিয়াউ মো তুনকে বরখাস্ত করা হয়েছে। বরখাস্তের কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, তিনি দেশের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন এবং একটি অস্বীকৃত সংস্থার হয়ে কথা বলেছেন, যা দেশকে প্রতিনিধিত্ব করে না।

তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব ও ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগও এনেছে মিয়ানমারের জান্তা সরকার।

Comments

The Daily Star  | English

PM Sheikh Hasina addresses nation

Prime Minister Sheikh Hasina addressed the nation regarding the students' quota reform movement.

15m ago