নতুন দল গড়ার পরিকল্পনা নেই, ২০২৪ সালেও নির্বাচনে লড়ার ইঙ্গিত ট্রাম্পের

নতুন রাজনৈতিক দল গড়ার কোনো পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত নভেম্বরের নির্বাচনে পরাজয়ের পর ট্রাম্প রিপাবলিকান দল ছেড়ে নতুন রাজনৈতিক দল গড়তে পারেন বলে গুঞ্জন ছিল।
ডোনাল্ড ট্রাম্প। ছবি: রয়টার্স ফাইল ফটো

নতুন রাজনৈতিক দল গড়ার কোনো পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত নভেম্বরের নির্বাচনে পরাজয়ের পর ট্রাম্প রিপাবলিকান দল ছেড়ে নতুন রাজনৈতিক দল গড়তে পারেন বলে গুঞ্জন ছিল।

বিবিসি জানিয়েছে, জো বাইডেন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার পর গত রোববার ফ্লোরিডায় প্রথমবারের মতো একটি সম্মেলনে কথা বলছেন ট্রাম্প। সম্মেলনে তিনি ২০২৪ সালের নির্বাচনে আবারও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ইঙ্গিত দিয়েছেন।

সমর্থকদের তিনি জানান, তার নতুন কোনো রাজনৈতিক দল গড়ার পরিকল্পনা নেই। এটা রিপাবলিকান ভোট ভাগ করে ফেলবে।

দ্য কনজারভেটিভ পলিটিক্যাল অ্যাকশন কনফারেন্স (সিপিএসি) হলো রক্ষণশীল নেতাকর্মী ও রাজনীতিবিদদের দেশের বৃহত্তম সভা।

নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজয় এবং জানুয়ারির সহিংসতা নিয়ে ব্যাপক সমালোচিত হওয়া সত্ত্বেও ট্রাম্প রিপাবলিকানদের মধ্যে তার জনপ্রিয়তা ধরে রেখেছেন।

বিবিসি জানায়, রোববার বৈঠকে ট্রাম্পের উপস্থিতি থেকেই বোঝা যায় যে, কয়েকজন প্রবীণ রাজনীতিবিদরা সাবেক প্রেসিডেন্টের কাছ থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে দিলেও রিপাবলিকান দলের ওপর ট্রাম্প ক্রমাগত নিজের প্রভাব বিস্তার করেই চলেছেন।

বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া রিপাবলিকান পার্টির এই সম্মেলনটিতে ট্রাম্পকে ঘিরে ব্যাপক আগ্রহ ছিল। স্পিকারদের মধ্যে টেক্সাসের সিনেটর টেড ক্রুজ এবং তার পুত্র ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়রসহ অনেক ট্রাম্পপন্থি নেতারা ছিলেন।

৭৪ বছর বয়সী সাবেক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এক ঘণ্টারও বেশি দেরি করে সম্মেলনের মঞ্চে উপস্থিত হয়েছিলেন। মঞ্চে আসার পর সমর্থকরা ট্রাম্পকে দেখে ব্যাপক উল্লাসিত হন। সেদিন ভিড়ের মধ্যে অনেকেই মাস্ক পরতে দেখা যায়নি।

ট্রাম্প বলেন, ‘আমি আজ আপনার সামনে দাঁড়িয়ে ঘোষণা করছি যে আমরা চার বছর আগে একসঙ্গে যে যাত্রা শুরু করেছিলাম এখন তা অনেক দূরে সরে গেছে।’

‘আমরা আজ বিকেলে ভবিষ্যতের কথা বলতে একত্রিত হয়েছি— আমাদের আন্দোলনের ভবিষ্যৎ, আমাদের দলের ভবিষ্যৎ এবং আমাদের প্রিয় দেশের ভবিষ্যৎ।’

গত সপ্তাহে একটি মার্কিন জরিপে দেখা গেছে, ট্রাম্প যদি রিপাবলিকান ছেড়ে নিজের দল শুরু করেন তবে ৪৬ শতাংশ ভোটার তাকে ভোট দেবেন।

তবে, নতুন রাজনৈতিক দল গড়ার খবরকে ‘গুজব’ উল্লেখ করে এটি একটি ‘ফেক নিউজ’ বলে উল্লেখ করেন তিনি।

কৌতুকছলে ট্রাম্প বলেন, ‘এটা তো চমৎকার হবে। আসুন আমরা একটি নতুন পার্টি শুরু করি যাতে আমরা আমাদের ভোট ভাগ করে ফেলতে পারি এবং কখনই জিততে না পারি।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের রিপাবলিকান পার্টি আছে। এটি ঐক্যবদ্ধ এবং আগের চেয়েও শক্তিশালী হতে যাচ্ছে।’

ট্রাম্প তার উত্তরসূরি প্রেসিডেন্ট বাইডেনের তীব্র সমালোচনা করে বলেন, মার্কিন নীতিমালা এখন ‘আমেরিকা ফার্স্ট’ থেকে ‘আমেরিকা লাস্ট’ হয়ে গেছে।

তিনি নতুন প্রশাসনকে অভিবাসন ও সীমান্ত সুরক্ষার বিষয়ে কঠোর অবস্থানে ফিরে আসার আহ্বান জানান।

ট্রাম্প বলেন, ‘আমরা সবাই জানতাম যে বাইডেন প্রশাসন খারাপ হতে যাচ্ছে তবে তারা কতটা খারাপ হবে এবং তারা কতটা দূরে সরে যাবে, তা আমরা কেউ কল্পনাও করতে পারিনি।’

সিপ্যাকের ভাষণে ট্রাম্প আবারও নভেম্বরের নির্বাচনে ভোট জালিয়াতির দাবি করেন। তিনি ২০২৪ সালে আবারও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ইঙ্গিত দেন। তিনি বলেন, ‘আমি এমনকি তাদের (ডেমোক্রেটদের) তৃতীয়বারের জন্য পরাজিত করার সিদ্ধান্ত নিতে পারি।’

৬ জানুয়ারি মার্কিন ক্যাপিটল ভবনে সহিংসতার ঘটনার পর সাবেক প্রেসিডেন্ট ফেসবুক এবং টুইটারসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম প্ল্যাটফর্ম থেকে নিষিদ্ধ রয়েছেন। জানুয়ারিতে হোয়াইট হাউস ছেড়ে যাওয়ার পর থেকে তিনি তার মার-এ-লগো ফ্লোরিডা গলফ রিসোর্টে থাকছেন।

Comments