মিলল পারফরম্যান্সের স্বীকৃতি, জাতীয় দলে পাঁচ নতুন মুখ

কিছুদিন আগে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের কোচ গণমাধ্যমের কাছে বলেছিলেন, ঘরোয়া লিগে পারফর্ম করাদের সুযোগ দিতে চান তিনি।
jamie day

কিছুদিন আগে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের কোচ গণমাধ্যমের কাছে বলেছিলেন, ঘরোয়া লিগে পারফর্ম করাদের সুযোগ দিতে চান তিনি। তার প্রতিশ্রুতি কেবল কথাতে সীমাবদ্ধ থাকেনি। কাজে প্রমাণ রেখেছেন এই ইংলিশ কোচ। নেপালে অনুষ্ঠেয় ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টের জন্য ২৪ সদস্যের যে দল তিনি ঘোষণা করেছেন, সেখানে নতুন মুখ পাঁচটি।

মঙ্গলবার ঘোষিত দলে প্রথমবারের মতো ডাক পেয়েছেন বসুন্ধরা কিংসের ডিফেন্ডার রিমন হোসেন ও ঢাকা মোহামেডানের ডিফেন্ডার হাবিবুর রহমান সোহাগ। বাকি তিন জন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্রের ফুটবলার। তারা হলেন ডিফেন্ডার মোহাম্মদ ইমন ও মেহেদী হাসান এবং ফরোয়ার্ড মেহেদী হাসান রয়েল। তাদের সবাই চলমান বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে নজর কেড়েছেন।

২৪ সদস্যের দলের সঙ্গে স্ট্যান্ডবাই হিসেবে রাখা হয়েছে আরও সাত জনকে। তারা সবাই বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দলের সদস্য। করোনাভাইরাস পরিস্থিতি ও চোটের কথা মাথায় রেখে তাদের ডাকা হয়েছে।

চোটের কারণে দলে জায়গা মেলেনি স্ট্রাইকার নাবীব নেওয়াজ জীবন ও ডিফেন্ডার তপু বর্মণের। এছাড়া, কাতারের বিপক্ষে বাংলাদেশের সবশেষ ম্যাচের স্কোয়াড থেকে বাদ পড়েছেন মোহাম্মদ ইব্রাহিম, ইয়াসিন খান, তৌহিদুল আলম সবুজ, রবিউল হাসান, আতিকুর রহমান ফাহাদ, এমএস বাবলু ও পাপ্পু হোসেন।

কলকাতা মোহামেডানের হয়ে আই লিগে খেলায় ভারতে অবস্থান করছেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া। ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টের দলে রাখা হয়েছে এই মিডফিল্ডারকে। তবে তিনি কবে দলের সঙ্গে যোগ দিবেন তা এখনও নিশ্চিত নয়।

টুর্নামেন্ট সামনে রেখে জাতীয় দলের ক্যাম্প শুরু হবে আগামী ১৪ মার্চ। তার আগের দিন করোনাভাইরাস পরীক্ষা করানো হবে খেলোয়াড়দের। ক্যাম্প হবে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে। এরপর ১৮ থেকে ২০ মার্চের মধ্যে নেপালের উদ্দেশে রওনা হবে বাংলাদেশ।

আগামী ২৩ মার্চ শুরু হয়ে টুর্নামেন্টটি চলবে ২৯ মার্চ পর্যন্ত। বাংলাদেশ ও নেপালের পাশাপাশি অংশ নিচ্ছে কিরগিজস্তান অনূর্ধ্ব-২৩ দল। লিগভিত্তিক এই টুর্নামেন্টে প্রতিটি দল একবার করে পরস্পরকে মোকাবিলা করবে। শীর্ষ দুটি দল খেলবে ফাইনাল। সবমিলিয়ে চারটি ম্যাচ মাঠে গড়াবে। টুর্নামেন্টের ভেন্যু কাঠমান্ডুর দশরথ স্টেডিয়াম।

২৪ সদস্যের বাংলাদেশ দল:

গোলরক্ষক: আনিসুর রহমান, শহীদুল আলম ও আশরাফুল ইসলাম;

ডিফেন্ডার: বিশ্বনাথ ঘোষ, রিমন হোসেন, টুটুল হোসেন বাদশা, রিয়াদুল হাসান, রহমত মিয়া, ইয়াসিন আরাফাত, মোহাম্মদ ইমন, মেহেদী হাসান ও হাবিবুর রহমান সোহাগ;

মিডফিল্ডার: মাসুক মিয়া জনি, সোহেল রানা, জামাল ভূঁইয়া ও মানিক হোসেন মোল্লা;

উইঙ্গার/ফরোয়ার্ড: বিপলু আহমেদ, মাহবুবুর রহমান সুফিল, মতিন মিয়া, সাদ উদ্দিন, রাকিব হোসেন, সুমন রেজা, মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ ও মেহেদি হাসান রয়েল।

স্ট্যান্ডবাই:

(অনূর্ধ্ব-২৩ দলের সাত জন)

গোলরক্ষক: মিতুল মারমা;

ডিফেন্ডার: মোহাম্মদ আতিকুমজ্জামান;

মিডফিল্ডার: আবু শাহেদ, রহিম উদ্দিন, ইমরান হাসান রিমন ও ফয়সাল আহমেদ ফাহিম;

ফরোয়ার্ড: মোহাম্মদ জুয়েল।

Comments

The Daily Star  | English

Coastal villagers shifted to LPG from Sundarbans firewood

'The gas cylinder has made my life easy. The smoke and the tension of collecting firewood have gone away'

1h ago