তুরস্ক থেকে সামরিক ড্রোন কিনতে চায় সৌদি আরব: এরদোয়ান

তুরস্কের কাছ থেকে সৌদি আরব সামরিক ড্রোন কিনতে চায় বলে গতকাল মঙ্গলবার জানিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান।
Erdogan.jpg
তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। ছবি: রয়টার্স

তুরস্কের কাছ থেকে সৌদি আরব সামরিক ড্রোন কিনতে চায় বলে গতকাল মঙ্গলবার জানিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান।

আল-জাজিরা জানিয়েছে, এ ঘটনার মাধ্যমে দুই প্রতিদ্বন্দ্বী আঞ্চলিক শক্তির মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্কের নতুন দিক উন্মোচিত হতে যাচ্ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

২০১৮ সালে ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডের পর থেকে আঙ্কারা ও রিয়াদের মধ্যে সম্পর্কের টানাপড়েন চলছে। সৌদি আরবের অনানুষ্ঠানিক তুর্কি পণ্য বর্জনের ডাকে ইতোমধ্যেই দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ভেঙে পড়েছে, যদিও উভয় দেশ সম্পর্ক উন্নয়নে কাজ করবে বলে জানিয়েছে।

মঙ্গলবারের বক্তব্যে তুরস্কের দীর্ঘদিনের প্রতিদ্বন্দ্বী গ্রিসের সঙ্গে সৌদির যৌথ বিমান মহড়া পরিচালনার সিদ্ধান্তের বিষয়ে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেন এরদোয়ান।

তিনি বলেন, ‘সৌদি আরব গ্রিসের সঙ্গে যৌথ মহড়া দিচ্ছে, আবার একইসময়ে আমাদের কাছ থেকে সামরিক ড্রোন কিনতে চাইছে। আমাদের প্রত্যাশা- এই ইস্যুটির শান্তিপূর্ণ সমাধান।’

বিশ্বে সামরিক ড্রোন তৈরির অন্যতম প্রধান নির্মাতা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে তুরস্ক। গতবছর বিতর্কিত নাগরনো-কারাবাখ অঞ্চল নিয়ে আর্মেনিয়ার সঙ্গে ছয় সপ্তাহের যুদ্ধে এসব ড্রোন তুর্কির মিত্র আজারবাইজানকে বেশ সাহায্য করেছে।

সিরিয়া ও লিবিয়ায় চলমান সংঘাতেও এসব তুর্কি ড্রোন মোতায়েন করা হয়েছে।

ইতোমধ্যে তুরস্কের বেসরকারি ভেস্টেল কোম্পানির সঙ্গে রিয়াদের প্রযুক্তি বিনিময় চুক্তি রয়েছে, যা সৌদি আরবকে নিজস্বভাবে সামরিক ড্রোন তৈরির সুযোগ দেয়।

Comments

The Daily Star  | English

Quota protesters need to move the court, not the govt: PM

Hasina says protesters have to move the court, not the govt to resolve the issue, warns them against destructive activities

20m ago