ব্রাহ্মণবাড়িয়া: নিহত বেড়ে ৬ হেফাজতের হরতালে দোকান ও যান চলাচল বন্ধ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতে ইসলামের ডাকা হরতাল চলছে। আজ রোববার ভোর থেকেই হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা হরতালের সমর্থনে জেলা শহরটির একাধিক পয়েন্টে খণ্ড খণ্ড বিক্ষোভ মিছিল করে।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের টিএ রোড এলাকা। ২৮ মার্চ ২০২১। ছবি: স্টার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতে ইসলামের ডাকা হরতাল চলছে। আজ রোববার ভোর থেকেই হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা হরতালের সমর্থনে জেলা শহরটির একাধিক পয়েন্টে খণ্ড খণ্ড বিক্ষোভ মিছিল করে।

হেফাজত ইসলামের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমির মাওলানা সাজিদুর রহমানের নেতৃত্বে কান্দিপাড়া এলাকার জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়া মাদ্রাসা প্রাঙ্গণ থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি বের হয়। হরতালের সমর্থনে শহরের প্রধান সড়ক টিএ রোড প্রদক্ষিণ শেষে তারা প্রেসক্লাবের সামনে এসে সমাবেশ করেন।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন হেফাজত ইসলামের জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়া মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মুফতি মোবারক উল্লাহ, শিক্ষাসচিব মাওলানা শামসুল হক, জেলা ক্বওমী ছাত্র পরিষদের আহবায়ক মাওলানা এরশাদ প্রমূখ।

মিছিল শেষে মাওলানা সাজিদুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ‘গত শনিবার বিকেলে স্থানীয় সংসদ সদস্য র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী ছাত্রলীগ ও যুবলীগ ক্যাডারদের সঙ্গে নিয়ে মাদ্রাসার ছাত্রদের ওপর হামলা করেন। একজন দায়িত্বশীল নেতা হয়ে তিনি যে নিন্দনীয় কাজ করছেন আমরা এর বিচার চাই।’

ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরে হেফাজতে ইসলামের হরতালের সমর্থনে মিছিল। ২৮ মার্চ ২০২১। ছবি: স্টার

স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে, হরতালের কারণে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের দোকানপাটসহ বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এছাড়া মহাসড়ক ও আঞ্চলিক সড়কে ছোট-বড় ও দুরপাল্লার যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। ঢাকা-সিলেট ও কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের ব্রাহ্মণবাড়িয়া অংশের কমপক্ষে ৪০টি স্পটে টায়ার জ্বালিয়ে সড়কে অবরোধ করেছে হেফাজতে ইসলামের কর্মী-সমর্থকরা।

সরেজমিনে দেখা গেছে, শহরের টিএ রোড, ফকিরাপুল, মঠের গোড়া, কুমারশীল মোড় এলাকাসহ বিভিন্নস্থানে বৈদ্যুতিক খুঁটি ফেলে ও টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে ব্যারিকেড সৃষ্টি করা হয়েছে। তবে শহরের কুমারশীল মোড় ও পুলিশ সুপারের বাসভবন সংলগ্ন এলাকা ছাড়া আর কোথাও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে দেখা যায়নি।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে গত শনিবার বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সংঘর্ষ হয়। হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ মিছিলের সঙ্গে পুলিশ ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সংঘর্ষে চার জন নিহত হয়েছেন। গুলিবিদ্ধ হয়ে আরও অন্তত ১৪ জন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। এ ছাড়া শহরের কান্দিরপাড়া এলাকায় ছাত্রলীগ ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ এক শিক্ষার্থী হাসপাতালে মারা গেছে।

সোনার বাংলা এক্সপ্রেস ট্রেনে হামলা

প্রত্যক্ষদর্শীরা ডেইলি স্টারকে জানিয়েছেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দক্ষিণ পৈরতলা এলাকায় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামগামী সোনার বাংলা এক্সপ্রেস ট্রেনে হামলা ও ভাঙচুর করেছে হেফাজতে ইসলামের কর্মী সমর্থকরা।

তারা আরও জানিয়েছেন, হামলাকারীরা ট্রেনটির চারটি বগিতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। তারা জানালার কাঁচে ঢিল দেয়। মোটা কাঁচের ফিক্সড জানালা হওয়ায় যাত্রীরা আহত হয়নি। ট্রেনটি এখন উল্টোদিকে ব্যাক করে আশুগঞ্জের তালশহর রেল স্টেশনে আছে।

Comments

The Daily Star  | English
MP Azim’s body recovery

Feud over gold stash behind murder

Slain lawmaker Anwarul Azim Anar and key suspect Aktaruzzaman used to run a gold smuggling racket until they fell out over money and Azim kept a stash worth over Tk 100 crore to himself, detectives said.

8h ago