হেফাজতে ইসলাম ইসলামবিরোধী, জঙ্গি ও স্বাধীনতাবিরোধী: শেখ সেলিম

হেফাজতে ইসলামকে ইসলামবিরোধী, জঙ্গি ও স্বাধীনতাবিরোধী আখ্যা দিয়ে হেফাজতকে ছাড় দেয়া যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম।
শেখ ফজলুল করিম সেলিম। ফাইল ফটো

হেফাজতে ইসলামকে ইসলামবিরোধী, জঙ্গি ও স্বাধীনতাবিরোধী আখ্যা দিয়ে হেফাজতকে ছাড় দেওয়া যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম।

আজ শনিবার জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে দেওয়া বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

শেখ সেলিম বলেন, 'হেফাজতে ইসলাম নামে হেফাজতে ইসলাম আসলে ইসলামবিরোধী, জঙ্গি ও স্বাধীনতাবিরোধী। এরা দেশের শত্রু। এদের কোনও ছাড় দেওয়া যাবে না। এদের বিরুদ্ধে কঠোর হতে হবে।'

যারা বাংলাদেশকে স্বীকার করে না তাদের বাংলাদেশে থাকার কোন অধিকার নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, 'যারা বিশ্ববাসীর কাছে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করেছে। দেশের অর্জন ও স্বাধীনতার গৌরবকে নস্যাৎ করার চেষ্টা করছে। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।'

সংসদ সদস্য শেখ সেলিম বলেন, 'দরকার হলে ট্রাইব্যুনাল করে অবিলম্বে তাদের বিচার করতে হবে। হেফাজতের জঙ্গিরা যেসব মাদ্রাসা থেকে রাস্তায় বের হয়ে মানুষকে হত্যা করে, মানুষের বাড়িঘর ও স্থাপনায় আক্রমণ করে ও পুড়িয়ে দেয়, সেইসব মাদ্রাসা বন্ধ করে দিতে হবে।'

বক্তব্যে তিনি হেফাজত ও বিএনপি-জামায়াতের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আরও কঠোর হওয়ার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, 'বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী আর স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর জন্য অনেক কিছু আমরা সহ্য করে গেছি। আর কোনও কিছু সহ্য করা হবে না। এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। এই অপশক্তিকে ছাড় দেওয়া যাবে না।'

শেখ সেলিম বলেন, 'সরকার বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ১০ দিনের যে অনুষ্ঠান করেছে তাতে ২৭টি দেশের প্রধান ও ১২টি আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রধান ভিডিওবার্তা পাঠিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এই অনুষ্ঠান ও ভিডিওবার্তায় বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি বৃদ্ধি পেয়েছে।

সেলিম বলেন, 'একাত্তরের পরাজিত স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি যারা বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে মেনে নিতে পারেনি সেই শক্তি আমাদের সুন্দর অনুষ্ঠান কলঙ্কিত করার জন্য চট্টগ্রাম ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সহিংস ঘটনা ঘটিয়েছে।'

তিনি বলেন, 'বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও ২৬ মার্চ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বিএনপি-জামায়াত স্বাধীনতাবিরোধী হেফাজতে ইসলাম হাটহাজারীতে তাণ্ডব চালায়। তাদের বাংলাদেশে থাকারও কোন অধিকার নেই। হেফাজতে ইসলাম নামে হেফাজতে ইসলাম, ইসলামবিরোধী। ইসলাম কেবল হেফাজত করতে পারেন আল্লাহ। জঙ্গিদের দ্বারা ইসলামকে হেফাজত হয় না।'

শেখ সেলিম আরও বলেন, 'বিএনপি-জামাত-হেফাজত এরা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ছিল। বিএনপি ২৬ মার্চ স্মৃতিসৌধে যায়নি। কারণ তারা স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না।'

নরেন্দ্র মোদির বিভিন্ন মুসলিম দেশ সফরের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, 'ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বিভিন্ন মুসলিম দেশে সফর করেছেন। সেই সব দেশের সরকার ও জনগণ তাকে আন্তরিকভাবে গ্রহণ করেছেন। আর বাংলাদেশে মোদি এলে মুসলমানদের সর্বনাশ হয়ে যাবে, তার আসা নিয়ে এই ধরনের জঘণ্য রাজনীতি। এখানে বাধা দেয়া হয়। এরা পাকিস্তানের নিয়াজী, রাও ফরমান আলী ও তালেবানের অনুসারী। এরা স্লোগান দেয়, "আমরা সবাই তালেবান, বাংলা হবে আফগান।"'

শেখ সেলিমের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ বলেন, 'ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফর নিয়ে বিএনপি কোন বিরোধীতা করেনি। বিএনপি থেকে মোদিবিরোধী কোন স্লোগান বা মোদির আগমন করা যাবে না- এ ধরনের কোন বক্তব্য দেওয়া হয়নি।'

Comments

The Daily Star  | English

BCL men attack quota protesters at DMCH emergency dept

The ruling Bangladesh Chhatra League activists attacked the protesting anti-quota students entering the emergency department of Dhaka Medical College Hospital who gathered there for treatment after being beaten up by the ruling party men at earlier clashes

1h ago