লন্ডনের দূতাবাসে ঢুকতে পারলেন না মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত

লন্ডনে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে দূতাবাস থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, কয়েকটি সূত্র জানিয়েছে, তার ডেপুটি তাকে ভবন থেকে বের করে দিয়ে মিয়ানমারের সামরিক সরকারের পক্ষে লন্ডন দূতাবাসের দায়িত্ব নিয়েছেন।
লন্ডনে দূতাবাসের বাইরে অপেক্ষায় মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত কিউ জাওয়ার মিন। ছবি: এএফপি

লন্ডনে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে দূতাবাস থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, কয়েকটি সূত্র জানিয়েছে, তার ডেপুটি তাকে ভবন থেকে বের করে দিয়ে মিয়ানমারের সামরিক সরকারের পক্ষে লন্ডন দূতাবাসের দায়িত্ব নিয়েছেন।

আজ বৃহস্পতিবার লন্ডনে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত কিউ জাওয়ার মিন জানান, তাকে দূতাবাসে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না।

গত ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের পর গ্রেপ্তারকৃত নেতা অং সান সু চিকে মুক্তি দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে সম্প্রতি তিনি সামরিক সরকারের সঙ্গে বিবাদে জড়ান।

লন্ডনের দূতাবাসের বাইরে রয়টার্সকে রাষ্ট্রদূত কিউ জাওয়ার মিন বলেন, ‘আমাকে বের করে দেওয়া হয়েছে। এটা লন্ডনের মাঝখানে এক ধরনের অভ্যুত্থান... আপনি দেখতে পাচ্ছেন যে, তারা আমার বিল্ডিং দখল করেছে।’

তিনি জানান, পরিস্থিতি সম্পর্কে ব্রিটেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কথা বলেছেন।

চার কূটনৈতিক সূত্রের বরাতে রয়টার্স জানায়, উপরাষ্ট্রদূত চিট উয়িন চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স হিসেবে দূতাবাসের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। তিনি ও সামরিক অ্যাটাশে রাষ্ট্রদূত কিউ জাওয়ার মিনকে ভবনটিতে প্রবেশ করতে দিচ্ছেন না।

রয়টার্স জানিয়েছে, জোয়ার মিন দূতাবাসের বাইরে দাঁড়িয়ে কথা বলেছেন, সেখানে পুলিশ পাহারা দিয়েছে। দূতাবাসের বাইরে রাস্তায় জড়ো হওয়া বিক্ষোভকারীদের সঙ্গেও কথা বলেছেন তিনি।

এক বিবৃতিতে লন্ডন পুলিশ জানায়, ‘লন্ডনের মেফেয়ারে মিয়ানমার দূতাবাসের বাইরে বিক্ষোভের বিষয়ে আমরা অবগত আছি। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী কর্মকর্তারা সেখানে উপস্থিত আছেন। সেখান থেকে কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি।’

গত মাসে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত কিউ জাওয়ার মিন মিয়ানমারের নেতা অং সান সু চি ও ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট উয়িন মিন্টকে মুক্তি দেওয়ার আহ্বান জানান। তার এই ‘সাহসিকতার’ প্রশংসা করেছিলেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাব।

সেনা অভ্যুত্থানের পর মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর সদস্য ও তাদের কিছু ব্যবসায়ীক স্বার্থের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে যুক্তরাজ্য। তারা মিয়ানমারে গণতন্ত্র পুনর্বহালের দাবিও জানিয়েছে ।

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মিয়ানমারের লন্ডন দূতাবাসের এ ঘটনার বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করেনি।

দূতাবাসের বাইরে দাঁড়িয়ে কিউ জাওয়ার মিন রয়টার্সকে বলেন, ‘এটা আমার ভবন। আমাকে ভেতরে যেতে হবে। সে কারণে আমি এখানে অপেক্ষা করছি।’

আরও পড়ুন-

মিয়ানমারে গুলিতে অন্তত ৪৩ শিশু নিহত: সেভ দ্য চিলড্রেন

মিয়ানমারে হত্যাযজ্ঞ বন্ধে নিরাপত্তা পরিষদের উদ্যোগ আহ্বান

চীন-রাশিয়ার বিরোধিতায় আবারও মিয়ানমার নিয়ে বিবৃতি দিতে পারেনি নিরাপত্তা পরিষদ

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে নিরাপত্তা পরিষদের বিবৃতি আটকে দিলো চীন

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান নিরাপত্তা পরিষদকে

 

Comments

The Daily Star  | English

14 killed as truck ploughs thru multiple vehicles in Jhalakathi

It is suspected that the truck driver lost control over his vehicle due to a brake failure

1h ago