এবার হতাশায় জার্সি ছুঁড়ে ফেললেন রোনালদো

সপ্তাহ দুই আগে সার্বিয়ার বিপক্ষে অধিনায়কের আর্ম ব্যান্ড মাঠে ছুঁড়ে বেশ আলোচনায় ছিলেন জুভেন্টাসের পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। সে ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে আরও নতুন ঘটনার জন্ম দিয়েছেন তিনি। এবার সিরি আর ম্যাচে জেনোয়ার বিপক্ষে ম্যাচ শেষে ট্যানেলে যাওয়ার পথে জার্সি ছুঁড়ে ফেলেন পাঁচ বারের ব্যালন ডি'অর জয়ী এ তারকা। পরে এক বল বয় সে জার্সিটি কুড়িয়ে নেন।
ছবি: সংগৃহীত

সপ্তাহ দুই আগে সার্বিয়ার বিপক্ষে অধিনায়কের আর্ম ব্যান্ড মাঠে ছুঁড়ে বেশ আলোচনায় ছিলেন জুভেন্টাসের পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। সে ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে আরও নতুন ঘটনার জন্ম দিয়েছেন তিনি। এবার সিরি আর ম্যাচে জেনোয়ার বিপক্ষে ম্যাচ শেষে ট্যানেলে যাওয়ার পথে জার্সি ছুঁড়ে ফেলেন পাঁচ বারের ব্যালন ডি'অর জয়ী এ তারকা। পরে এক বল বয় সে জার্সিটি কুড়িয়ে নেন।

ঘরের মাঠে রোববার জেনোয়ার বিপক্ষে ৩-১ গোলের ব্যবধানে জয় পেয়েছে জুভেন্টাস। তিনটি গোল হলেও এ ম্যাচে গোল পাননি রোনালদো। গোল তিনটি এসেছে দেজান কুলুসেভস্কি, আলভারো মোরাতা ও ওয়েস্টন ম্যাককিনের কাছ থেকে। তবে গোল না পেলেও ম্যাচে দারুণ খেলেছেন রোনালদো। মোরাতার গোলের মূলনায়কই তিনি। ম্যাচে সর্বাধিক ছয়টি শট আসে তার কাছ থেকেই। আর শেষ পর্যন্ত গণমাধ্যমের মনোযোগও ঠিকই কেড়ে নিতে পেরেছেন এ পর্তুগিজ তারকা।

মূলত সতীর্থদের উপর কিছুটা বিরক্ত ছিলেন রোনালদো। কারণ এদিন বেশ কয়েকবার ফাঁকায় থেকেও সতীর্থদের কাছ থেকে বল পাননি তিনি। একবার মাঝ মাঠে থেকে বল দারুণ একটি সুযোগ নষ্ট করেন ফেদেরিকো চেইসা। বলে ঠিকঠাক শটই নিতে পারেননি। অথচ বাঁ প্রান্তে অনেকটা ফাঁকায় ছিলেন রোনালদো। হাত উঁচিয়ে তখনই হতাশা প্রকাশ করেছিলেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ম্যাচে গোল না পেয়ে রাগ আর ধরে রাখতে পারেননি।

বয়সটা ৩৬ হলেও মাঠে বরাবরই নিজের শতভাগ দিয়ে খেলেন রোনালদো। গোল পেতে মরিয়া হয়ে থাকেন। অপেক্ষাকৃত দুর্বল জেনোয়ার বিপক্ষে গোল না পেয়ে রাগটা মাঠেই ছাড়েন তিনি। যা নজর এড়ায়নি গণমাধ্যমের। সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়টির ব্যাখ্যা জানতে চাওয়া হয় কোচ আন্দ্রেয়া পিরলোর কাছে।

তবে পিরলো বিষয়টিকে স্বাভাবিকভাবেই দেখছেন, 'এটা খুব স্বাভাবিক যে সে গোল করতে চায়। বিশেষ করে যখন সে দেখেতে পেয়েছে ম্যাচটি নির্দিষ্ট ভাবে চলছিল। এটাই চ্যাম্পিয়নদের মনোভাবের অংশ যারা সবসময় তাদের চিহ্ন রেখে যেতে চান।'

উল্লেখ্য, কদিন আগে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচের শেষ মুহূর্তে একটি গোল বাতিল করায় যাওয়ায় বেজায় খেপেছিলেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। হতাশা গোপন করতে না পেরে মাঠেই অধিনায়কের আর্ম ব্যান্ড ছুঁড়ে দিয়ে শেষ বাঁশি বাজার আগেই মাঠ ছাড়েন। পরে সে আর্ম ব্যান্ড নিলামে বিক্রি হয় রেকর্ড দামে। কে জানে এবার হয়তো রোনালদোর জার্সিও নতুন কোনো রেকর্ডের অপেক্ষায় রয়েছে?

Comments

The Daily Star  | English
‘Farmer, RMG workers, migrants main drivers of Bangladesh economy in first 50 years’

‘Farmer, RMG workers, migrants main drivers of Bangladesh economy in first 50 years’

However, their contribution would not remain the same in the years to come, says a book published from London

44m ago