কুষ্টিয়ার রাস্তায় দরিদ্রদের জন্যে ‘নারী বাতায়ন’র ইফতার

কুষ্টিয়া শহরের বিভিন্ন সড়কের ফুটপাতে গত কয়েক দিন ধরে ইফতারের প্যাকেট ও পানি সাজিয়ে রাখা হচ্ছে। সেখান থেকে ইফতারের প্যাকেট তুলে নিচ্ছেন নিম্নআয়ের মানুষ। কেউ আবার পাশেই বসে খাচ্ছেন।
ইফতারের প্যাকেট তুলে নিচ্ছেন নিম্নআয়ের মানুষ। ছবি: স্টার

কুষ্টিয়া শহরের বিভিন্ন সড়কের ফুটপাতে গত কয়েক দিন ধরে ইফতারের প্যাকেট ও পানি সাজিয়ে রাখা হচ্ছে। সেখান থেকে ইফতারের প্যাকেট তুলে নিচ্ছেন নিম্নআয়ের মানুষ। কেউ আবার পাশেই বসে খাচ্ছেন।

কুষ্টিয়ার স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘নারী বাতায়ন’ এই ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছে। এ বছর রোজার শুরু থেকে প্রতিদিনই এভাবে নিম্নআয়ের ও অসহায় মানুষের জন্য ইফতারের আয়োজন করছে সংগঠনটি।

কুষ্টিয়ার খাদ্য ও মিষ্টান্ন উৎপাদন প্রতিষ্ঠান মৌবনের উদ্যোগে এই সংগঠনটি পরিচালিত হয়ে আসছে। সংগঠনটি মূলত নারীদের উন্নয়ন ও কল্যাণের পাশাপাশি সমাজের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের কল্যাণে কাজ করে। এটি মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর অনুমোদিত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

নারী বাতায়ন সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিন বিকেল ৫টার দিকে ইফতারের জন্য তৈরি করা প্যাকেট বিভিন্ন দিন শহরের বিভিন্ন সড়কে রাখা হয়।

সংগঠনের সদস্য রুবিনা খাতুন বলেন, ‘রমজানে এমনিতেই মানুষের নানা সমস্যা থাকে। এবার লকডাউনের কারণে এসব সুবিধাবঞ্চিত মানুষের দুর্ভোগ আরও বেড়েছে। পুরো রমজান জুড়েই এভাবে অসহায় মানুষের মুখে ইফতার তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছি আমরা।’

শহরের নারিকেলতলা এলাকার রিকশাচালক কুদ্দুস খান বলেন, ‘লকডাউনে যাত্রী নাই। কিন্তু সংসার তো আছে। চার জন খানেওয়ালা। যা আয় হয় ঠিক মতো খাইতেই কষ্ট হয়। বাড়তি খরচ তো অসম্ভব।’

তিনি জানান, দুদিন তিনি ওই ইফতারের প্যাকেট সংগ্রহ করেছেন। বাসায় নিয়ে বৃদ্ধা মা ও পরিবারের সঙ্গে খেয়েছেন।

নারী বাতায়নের সভাপতি ও মৌবনের নিবার্হী পরিচালক সাফিনা আনজুম জনী জানান, তারা এ ধরনের কাজ সবসময়ই করে থাকেন। ২০০১ সাল থেকেই এ ধরনের কাজ করছেন তারা। গত বছর করোনা মহামারির শুরু থেকে এই কাজটি একটু বড়সড় পরিসরে শুরু করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আপাতত প্রতিদিন ১৫০ প্যাকেট খাবার বিতরণ করা হচ্ছে। আমার শুভাকাঙ্খী, বন্ধু-বান্ধবরা এ কাজে সহায়তা করছেন। পুরো রোজার মাস এই কার্যক্রম চলবে। সামনে এটা আরও বড় পরিসরে করার ইচ্ছে আছে।’

Comments

The Daily Star  | English

Pahela Baishakh being celebrated

Pahela Baishakh, the first day of Bengali New Year-1431, is being celebrated across the country today with festivity, upholding the rich cultural values and rituals of the Bangalees

1h ago