করোনায় এনআইএলএমআরসি পরিচালক অধ্যাপক ডা. শামসুজ্জামানের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন রাজধানীর ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ল্যাবরেটরি মেডিসিন অ্যান্ড রেফারেল সেন্টারের (এনআইএলএমআরসি) পরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল খায়ের মোহাম্মদ শামসুজ্জামান তুষার। রাজধানীর শেখ রাসেল জাতীয় গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সকাল ৭টার দিকে তিনি শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর।
অধ্যাপক ডা. আবুল খায়ের মোহাম্মদ শামসুজ্জামান তুষার। ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন রাজধানীর ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ল্যাবরেটরি মেডিসিন অ্যান্ড রেফারেল সেন্টারের (এনআইএলএমআরসি) পরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল খায়ের মোহাম্মদ শামসুজ্জামান তুষার। রাজধানীর শেখ রাসেল জাতীয় গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সকাল ৭টার দিকে তিনি শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর।

বিষয়টি দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন চিকিৎসকদের সংগঠন ফাউন্ডেশন ফর ডক্টরস সেফটি, রাইটস অ্যান্ড রেসপনসিবিলিটিসের (এফডিএসআর) যুগ্ম মহাসচিব ডা. রাহাত আনোয়ার চৌধুরী। এনআইএলএমআরসির সহকারী পরিচালক ডা. আবু আহমদ আল মামুন ও গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের পরিচালক ফারুক আহমেদও বিষয়টি ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন।

ডা. রাহাত আনোয়ার চৌধুরী জানান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও আইইডিসিআরেরও সাবেক পরিচালক ছিলেন মাইক্রোবায়োলজির অধ্যাপক ডা. আবুল খায়ের মোহাম্মদ শামসুজ্জামান তুষার। গত ৮ এপ্রিল তার করোনা শনাক্ত হয়। ১০ এপ্রিল তাকে রাজধানীর শেখ রাসেল জাতীয় গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। ওই দিনই তাকে আইসিইউতে নেওয়া হয়। মাঝে অবস্থার বেশি অবনতি হলে তিন দিন তাকে লাইফ সাপোর্টও দেওয়া হয়। পরবর্তীতে আইসিইউতেই চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ তিনি মারা যান।

ফারুক আহমেদ জানান, করোনা ছাড়াও অধ্যাপক ডা. শামসুজ্জামানের ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপ ছিল। করোনা আক্রান্ত হওয়ায় তার ফুসফুস ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল।

এফডিএসআরের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৬৭ জন চিকিৎসক মারা গেছেন।

Comments

The Daily Star  | English

1.6m marooned in Sylhet flood

Eid has not brought joy to many in the Sylhet region as homes of more than 1.6 million people were flooded and nearly 30,000 had to move to shelter centres.

7h ago