বাংলাদেশের নির্বিষ বোলিং, জোড়া সেঞ্চুরিতে দুর্বার শ্রীলঙ্কা

পাল্লেকেলেতে ৩ উইকেটে ৪৪২ রান নিয়ে চতুর্থ দিনের চা-বিরতিতে গেছে শ্রীলঙ্কা। এদিন দ্বিতীয় সেশনে খেলা হয়েছে ৩০ ওভার, লঙ্কানরা তুলেছে আরও ১১১ রান। অধিনায়ক করুনারত্নে ব্যাট করছেন ১৮৪ রানে, ধনঞ্জয়া অপরাজিত আছেন ১৩৪ রানে।
Dimuth Karunaratne, Dhananjaya de Silva
ছবি: এসএলসি

তাসকিন আহমেদের কয়েকটি ডেলিভারি ছাড়া বাংলাদেশের বোলিংয়ে যেন কিছু নেই। চতুর্থ দিনে বাকিদের কেউই ব্যাটসম্যানদের পরাস্ত করতে পারলেন না। চাপ মুক্তভাবে জম্পেশ হলো দিমুথ করুনারত্নে-ধনঞ্জয়া ডি সিলভার জুটি। দুজনেই করলেন সেঞ্চুরি। করুনারত্নের অপেক্ষায় নিজের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির। তাদের দাপটে টানা দুই সেশন উইকেটবিহীন থাকল বাংলাদেশ।

পাল্লেকেলেতে ৩ উইকেটে  ৪৪২ রান নিয়ে চতুর্থ দিনের চা-বিরতিতে গেছে শ্রীলঙ্কা। এদিন দ্বিতীয় সেশনে খেলা হয়েছে  ৩০  ওভার, লঙ্কানরা তুলেছে আরও ১১১  রান। অধিনায়ক করুনারত্নে ব্যাট করছেন ১৮৪ রানে, ধনঞ্জয়া অপরাজিত আছেন ১৩৪ রানে।

চতুর্থ উইকেট জুটিতে এসে গেছে ২৫২ রান।

সবচেয়ে বেশি হাত ঘুরিয়ে গেছেন দুই স্পিনার তাইজুল ইসলাম আর মেহেদী হাসান মিরাজ। উইকেটে টার্ন-বাউন্স না পাওয়ায় বেশ সাদামাটা ছিল পুরোটা সময়। এক পর্যন্ত লেগ স্টাম্পের বাইরে নেতিবাচক বোলিং করতে থাকেন তারা।

ছোট ছোট স্পেলে ফিরে তাসকিন চেষ্টা চালিয়েছে প্রাণপণ। কিন্তু উইকেট যেন সোনার হরিণ। সবচেয়ে হতাশ করেছেন আবু জায়েদ রাহি। আগের দিন থেকে বিবর্ণ এই পেসার বল করতে এলেই দিয়েছেন আলগা বল। মাঝারি পেসের এসব বল খেলতে কিংবা ছেড়ে দিতে কোন সমস্যাই হয়নি লঙ্কান ব্যাটসম্যানদের।

হাতে ৭ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশ থেকে এখন আর ৯৯ রানে পিছিয়ে আছে স্বাগতিকরা। নিষ্প্রাণ উইকেটে লিড পাওয়া তাদের জন্য সময়ের ব্যাপার।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

(চতুর্থ দিনের চা- বিরতি পর্যন্ত)

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস: ৫৪১/৭

শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস: ১৩৪ ওভারে ৪৪২/৩(করুনারত্নে ১৮৪*, থিরিমান্নে ৫৮, ওশাদা ২০, ম্যাথিউস ২৫, ধনঞ্জয়া ১৩৪*; আবু জায়েদ ০/৪৯, তাসকিন ১/৭০, ইবাদত ০/৮২, মিরাজ ১/১০৩, তাইজুল ১/১১৮, মুমিনুল ০/৮, সাইফ ০/৩)।

Comments

The Daily Star  | English

Signal 7 at Payra, Mongla as Cyclone Remal forms over Bay

Cox’s Bazar, Ctg maritime ports asked to hoist Signal 6

2h ago