দারুণ বল করে সাকিবের ফেরার কাজ কঠিন করলেন নারাইন

সোমবার আইপিএলের ম্যাচে পাঞ্জাব কিংসকে ১২৩ রানে আটকে রাখতে অগ্রনী ভূমিকায় ছিলেন নারাইন। ৪ ওভার বল করে মাত্র ২২ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট।
Sunil Narine
ছবি: এসএলসি

তিন ম্যাচে জুতসই পারফর্ম করতে না পেরে কলকাতা নাইট রাইডার্সের একাদশ থেকে বাদ পড়েছিলেন সাকিব আল হাসান। তার জায়গা যিনি নিয়েছেন সেই সুনিল নারাইন প্রথম দুই ম্যাচে সাদামাটা থাকলেও পরের দুই ম্যাচে দারুণ বল করে আলো কেড়েছেন। ব্যাট হাতে ব্যর্থ হলেও বোলিং দিয়ে আপাতত একাদশে জায়গা নিশ্চিত করে রেখেছেন নারাইন। এতে সাকিবের ফেরা হয়ে গেল কঠিন।

সোমবার আইপিএলের ম্যাচে পাঞ্জাব কিংসকে ১২৩ রানে আটকে রাখতে অগ্রনী ভূমিকায় ছিলেন নারাইন। ৪ ওভার বল করে মাত্র ২২ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট। এর আগের ম্যাচেও ৪ ওভারে দেন মাত্র ২০ রান।

রান তাড়ায় ১৭ রানে ৩ উইকেট হারালেও রাহুল ত্রিপাঠি আর অধিনায়ক ওয়েন মরগ্যানের দুই ইনিংসে তীরে তরি ভিড়েছে তাদের।  ২০  বল হাতে রেখে কলকাতা ম্যাচ জিতেছে ৫ উইকেটে । দলের জয়ে ৪০ বলে ৪৭ করে অপরাজিত ছিলেন মরগ্যান, ত্রিপাঠি করেন ৩২ বলে ৪১ রান। ৬ ম্যাচে কলকাতার এটি মাত্র দ্বিতীয় জয়।

১২৪ রান তাড়ায় নিতিশ রানাকে প্রথম ওভারেই হারায় কলকাতা, দ্বিতীয় ওভারে ফিরে যান শুভমান গিল। চারে নেমেছিলেন নারাইন। বোলিংয়ে দারুণ করলেও ব্যাট হাতে থাকেন আরেকবার নিষ্প্রভ। মুখোমুখি চতুর্থ বলে আর্শ্বদ্বীপকে ছক্কা মারতে গিয়েছিলেন। বাউন্ডারি লাইনে ঝাঁপিয়ে দুর্দান্ত ক্ষিপ্রতায় তার ক্যাচ জমান রবি বিষ্ণই।

এরপর মরগ্যানের সঙ্গে আসে ত্রিপাঠির ম্যাচ জেতানো ৬৭ রানের জুটি। ৩২ বলে ৪১ করে দিপক হুডার শিকার হন ত্রিপাঠি। এরপর আন্দ্রে রাসেল ৯ বলে ১০ করে ফিরে গেলে দীনেশ কার্তিককে নিয়ে অনায়াসে বাকি কাজ সারেন মরগ্যান।

এর আগে পাঞ্জাবের ইনিংসে জুতসই শুরু এনেছিলেন দুই ওপেনার লোকেশ রাহুল আর মায়াঙ্ক আগারওয়াল। রাহুল ছিলেন কিছুটা মন্থর। থিতু হয়ে আর পোষানোর সুযোগ মেলেনি। দলের ৩৬ রানে তার উইকেট তুলেন প্যান্ট কামিন্স। হুডাকে ফিরিয়ে দেন প্রসিধ কৃষ্ণ।

পাঞ্জাবের ইনিংসে সবচেয়ে বড় আঘাত হানেন নারাইন। মন্থর উইকেটে থিতু আগারওয়াল আর মোসেজ হেনরিকসকে পর পর তুলে নেন তিনি। তার বল থেকে রান বের করাও হচ্ছিল কঠিন। পেসার শিভম মাবিও ছিলেন ভীষণ কার্যকর। ৪ ওভারে মাত্র ১৩ রান দিয়ে পান ১ উইকেট, ২৪ রানে ১ উইকেট নেন আরেক স্পিনার বরুন চক্রবর্তী। ৩০ রানে ৩ উইকেট পান পেসার কৃষ্ণ। এক পর্যায়ে ৯৮ রানে ৮ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়া পাঞ্জাব  শেষ পর্যন্ত ক্রিস জর্দানের ১৮ বলে ৩০ রানে কিছুটা লড়াইয়ের পুঁজি পায়। যদিও পরে তা কলকাতার কাছে হয়েছে মামুলি। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর

পাঞ্জাব কিংস: ২০ ওভারে ১২৩/৯ (রাহুল ১৯, মায়াঙ্ক ৩১, গেইল ০, হুডা ১, পুরান ১৯, হেনরিকস ২, শাহরুখ ১৩, জর্দান ৩০, বিষ্ণুই ১, শামি ১*, আর্শ্বদ্বীপ ১; মাবি ১/১৩, কামিন্স ২/৩১, নারাইন ২/২২, কৃষ্ণ ৩/৩০, রাসেল ০/২, বরুণ ১/২৪)

কলকাতা নাইট রাইডার্স:  ১৬.৪ ওভারে ১২৬/৫ (গিল ৯, রানা ০, ত্রিপাঠি ৪১  , নারাইন ০, মরগ্যান ৪৭*, রাসেল ১০, কার্তিক ১২ ; হেনরিকস ১/৫ , শামি ১/২৫, আর্শ্বদ্বীপ ১/২৭, বিষ্ণই ০/১৯,  জর্দান ০/২৪, হুডা ১/২০)

ফল: কলকাতা ৫ উইকেটে জয়ী।

 

Comments

The Daily Star  | English
 foreign serial

Iran-Israel tensions: Dhaka wants peace in Middle East

Saying that Bangladesh does not want war in the Middle East, Foreign Minister Hasan Mahmud urged the international community to help de-escalate tensions between Iran and Israel

7h ago