শিল্পীদের নির্বাচন: কে হারলেন কে জিতলেন

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার ভোটে তিনটি প্রধান রাজনৈতিক শক্তি চলচ্চিত্র অঙ্গনের কিছু তারকাকে দলীয় প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছিল। তৃণমূল কংগ্রেস ২০১১ সালে ক্ষমতায় আসার আগে থেকেই বিনোদন জগতের তারকাদের নিজেদের দলে টানতে সক্ষম হয়েছিল। তবে, তাদের অনেককেই ধরে রাখতে পারেনি তৃণমূল।
তৃণমূলে রাজ চক্রবর্তী, কাঞ্চন মল্লিক, সোহম ও সায়নী ঘোষ (বাঁ দিক থেকে)।

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার ভোটে তিনটি প্রধান রাজনৈতিক শক্তি চলচ্চিত্র অঙ্গনের কিছু তারকাকে দলীয় প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছিল। তৃণমূল কংগ্রেস ২০১১ সালে ক্ষমতায় আসার আগে থেকেই বিনোদন জগতের তারকাদের নিজেদের দলে টানতে সক্ষম হয়েছিল। তবে, তাদের অনেককেই ধরে রাখতে পারেনি তৃণমূল।

বিজেপিতে যশ দাশগুপ্ত, শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়, হিরণ চট্টোপাধ্যায় ও পায়েল সরকার (বাঁ দিক থেকে)।

এবারের বিধানসভা নির্বাচনে হুগলীর চুঁচুড়া থেকে প্রার্থী হয়েছিলেন বিজেপির লকেট চট্টোপাধ্যায়। গণনার প্রায় শেষ পর্বে তিনি অনেকখানি পিছিয়ে পড়েছেন তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী তৃণমূলের প্রার্থী থেকে। উল্লেখ্য, লকেট একসময় মমতার বৃত্তে ছিলেন। পরে তিনি বিজেপিতে যোগ দেন।

আসানসোল থেকে ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটে জিতেছিলেন বিজেপির প্রার্থী গায়ক বাবুল সুপ্রিয়। তিনি এবারের বিধানসভা ভোটে টালিগঞ্জ থেকে প্রার্থী হন। শেষ খবর পর্যন্ত বাবুল তৃণমূলের অরূপ বিশ্বাসের কাছে অনেক ভোটে পিছিয়ে পড়েছেন।

অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ কিছুদিন আগেও ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসে। এবার প্রার্থী হয়েছেন বিজেপির টিকিটে। তিনিও পিছিয়ে আছেন।

অন্যদিকে অভিনেতা, নাট্যকার ও তৃণমূলের ব্রাত্য বসু তার জয়ের ধারা অব্যাহত রেখেছেন। তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যাওয়া হিরণ চট্টোপাধ্যায় খড়গপুর কেন্দ্রে জিতেছেন। এই আসনে ২০১৬ সালে জিতেছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি লোকসভায় জয়ী হওয়ার পর আসনটি উপনির্বাচনে ছিনিয়ে নেয় তৃণমূল। বিজেপির এই আসনটি পুনরুদ্ধার রাজনৈতিক ইঙ্গিতবাহী।

পরিচালক রাজ চক্রবর্তী তৃণমূলের প্রার্থী হিসেবে উত্তর চব্বিশ পরগণার বারাকপুরে এগিয়ে আছেন। গায়িকা অদিতি মুন্সী লড়ছেন তৃণমূলের প্রার্থী হিসেবে রাজারহাট গোপালপুর কেন্দ্রে। তিনিও এগিয়ে আছেন। সংযুক্ত মোর্চার সিপিআই (এম) প্রার্থী টেলি অভিনেতা দেবদূত ঘোষ টালিগঞ্জে পিছিয়ে আছেন। আরেক অভিনেতা বিজেপির যশ ব্যাণার্জী পিছিয়ে পড়েছেন হুগলীর চন্ডীতলাতে।

তৃণমূল প্রার্থী অভিনেতা চিরঞ্জীত জয়ী হয়েছেন উত্তর চব্বিশ পরগণার বারাসাত থেকে। তৃণমূলের প্রার্থী অভিনেতা সোহম চক্রবর্তী চন্ডীপুর কেন্দ্রে এগিয়ে আছেন। পশ্চিম মেদিনীপুর কেন্দ্রে তৃণমূলের প্রার্থী অভিনেত্রী জুন মাল্য এগিয়ে আছেন। বিজেপি প্রার্থী অভিনেত্রী শ্রাবন্তী মজুমদার পিছিয়ে পড়েছেন। তৃণমূলের সায়নী ঘোষও এগিয়ে আছেন। তৃণমূলের আরেক তারকা প্রার্থী কাঞ্চন মল্লিকও এগিয়ে আছেন।

আরও পড়ুন:

মমতাকে অভিনন্দন মেহবুবা মুফতি, অরবিন্দ কেজরিওয়াল ও ওমর আব্দুল্লাহর

সব চোখ নন্দীগ্রামে

পশ্চিমবঙ্গ: তৃণমূল-বিজেপি লড়াই সমানে সমান

পশ্চিমবঙ্গ: হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের ইঙ্গিত

পশ্চিমবঙ্গ: প্রথম রাউন্ডের গণনায় তৃণমূল এগিয়ে

পশ্চিমবঙ্গে আবারও মমতা

পশ্চিমবঙ্গ: ভোটের প্রবণতা তৃণমুলের পক্ষে

পশ্চিমবঙ্গ: প্রথম রাউন্ডের গণনায় তৃণমূল এগিয়ে

 

পশ্চিমবঙ্গ: হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের ইঙ্গিত

Comments

The Daily Star  | English
Bank mergers in Bangladesh

Bank mergers: All dimensions must be considered

In general, five issues need to be borne in mind when it comes to bank mergers in Bangladesh.

10h ago