এমন পরিস্থিতিতে সুয়ারেজের চেয়ে ভালো কে রয়েছে, প্রশ্ন সিমিওনির

ম্যাচের বয়স তখন ৭৫ মিনিট। ওসাসুনার সঙ্গে গোল খেয়ে বসে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। অপর ম্যাচে অ্যাথলেটিক বিলবাওর বিপক্ষে তখন এগিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ। লা লিগার শিরোপা পুনরুদ্ধারের খুব কাছে এসেও যেন হাতছাড়া করার শঙ্কা জাগে দলটির। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ম্যাচের নাটকীয় সমাপ্তির টানেন লুইস সুয়ারেজ। অবিশ্বাস্য জয়ের পর এ উরুগুইয়ান তারকার উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন দলের প্রধান কোচ দিয়াগো সিমিওনি।
ফাইল ছবি

ম্যাচের বয়স তখন ৭৫ মিনিট। ওসাসুনার সঙ্গে গোল খেয়ে বসে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। অপর ম্যাচে অ্যাথলেটিক বিলবাওর বিপক্ষে তখন এগিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ।  লা লিগার শিরোপা পুনরুদ্ধারের খুব কাছে এসেও যেন হাতছাড়া করার শঙ্কা জাগে দলটির। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ম্যাচের নাটকীয় সমাপ্তির টানেন লুইস সুয়ারেজ। অবিশ্বাস্য জয়ের পর এ উরুগুইয়ান তারকার উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন দলের প্রধান কোচ দিয়াগো সিমিওনি।

ঘরের মাঠে আগের দিন ওসাসুনার সঙ্গে ২-১ গোলের ব্যবধানে জয় পায় অ্যাতলেতিকো। ৭৫তম আনতে বুদিমিরের গোলে পিছিয়ে পড়ার পর ৮২তম মিনিটে রেনান লোদির গোলে সমতায় ফিরে দলটি। তবে ৮৮তম মিনিটে দারুণ এক গোলে দলকে জয় এনে দেন সুয়ারেজ। মূল্যবান ৩ পয়েন্ট নিয়েই মাঠ ছাড়ে দলটি। অন্যথায় শিরোপা স্বপ্ন প্রায় ভেঙে যাচ্ছিল দলটির।      

বার্সেলোনায় থাকা অবস্থায় এমন পরিস্থিতি আগেও অনেক জয় এনে দিয়েছিলেন সুয়ারেজ। চাপের সময়ে তার বিকল্প আর কোনো খেলোয়াড় নেই বলেই মনে করেন সিমিওনি। রীতিমতো প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন এ কোচ, 'সুয়ারেজের এমন অনেক অভিজ্ঞতা রয়েছে এবং ম্যাচটি যখন আমাদের থেকে সরে যাচ্ছিল তখন সব সমাধান করতে তার চেয়ে ভালো আর কে রয়েছে? সুয়ারেজ অবিশ্বাস্য স্পিরিট দেখিয়েছে। যদিও সাম্প্রতিক সময়ে ও গোল করছিল না তবে করার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিল।'

হেড টু হেডে রিয়াল মাদ্রিদের চেয়ে পিছিয়ে রয়েছে অ্যাতলেতিকো। তাই দুই দলের পয়েন্ট সমান হওয়ার পর গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকলেও শিরোপা বঞ্চিত হবে তারা। লা লিগার শিরোপা পুনরুদ্ধার করতে হলে পয়েন্টে স্পষ্ট ব্যবধানে গিয়ে থাকার বিকল্প তাদের। প্রচণ্ড চাপে থাকা অবস্থায় সুয়ারেজের গোলটিতেই যেন প্রাণ ফিরে পায় দলটি। 

চলতি মৌসুমের শুরুতে পিচিচি ট্রফি জয়ের দিকেই এগিয়ে যাচ্ছিল সুয়ারেজ। সে লড়াই থেকে মেসির সঙ্গে পেরে না উঠলেও অ্যাতলেতিকোর সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনি। মূলত শেষ পাঁচ ম্যাচে গোল না পাওয়ায় পিছিয়ে যান এ তারকা। মাঝে ইনজুরির কারণে মিস করেছেন বেশ কিছু ম্যাচ। তবে দলের খুব প্রয়োজনীয় সময়েই জ্বলে ওঠেন এ উরুগুইয়ান তারকা।

উল্লেখ্য, লা লিগার শিরোপা নিষ্পত্তি আসরের শেষ রাউন্ডে হতে যাচ্ছে। পয়েন্ট তালিকার প্রায় তলানিতে থাকা রিয়াল ভায়াদলিদের সঙ্গে শেষ ম্যাচে লড়াই করবে অ্যাতলেতিকো। সে ম্যাচে জিতলেই শিরোপা নিশ্চিত হবে তাদের। হারলে কিংবা ড্র করলেও চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুযোগ রয়েছে তাদের। সেক্ষেত্রে ইউরোপা লিগের ফাইনালিস্ট ভিয়ারিয়ালের কাছে হারতে হবে রিয়ালকে।

Comments

The Daily Star  | English

Remal hits southwest coast

More than eight lakh people were evacuated to safer areas in 16 coastal districts ahead of the year’s first cyclone that could be extremely dangerous.

52m ago