বিতর্কিত ইসলাম ম্যাপ: সরকারের বিরুদ্ধে মামলার হুমকি অস্ট্রিয়ার মুসলিমদের

বিতর্কিত ‘ইসলাম ম্যাপ’ ওয়েবসাইট প্রকাশ করায় অস্ট্রিয়ার চ্যান্সেলর সেবাস্টিয়ান কুর্জের নেতৃত্বাধীন সরকারের বিরুদ্ধে মামলার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছে দেশটির মুসলিমদের একটি সংগঠন।
অস্ট্রিয়া সরকারের ‘ন্যাশনাল ম্যাপ অব ইসলাম’ ওয়েবসাইটে সেখানকার ৬২০টির বেশি মসজিদের নাম-অবস্থান এবং কয়েকটি মুসলিম সংগঠন ও এর কর্মকর্তাদের নাম-ঠিকানাসহ বহির্বিশ্বের সঙ্গে তাদের সম্ভাব্য যোগাযোগ সংক্রান্ত তথ্য অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। ছবি: রয়টার্স

বিতর্কিত ‘ইসলাম ম্যাপ’ ওয়েবসাইট প্রকাশ করায় অস্ট্রিয়ার চ্যান্সেলর সেবাস্টিয়ান কুর্জের নেতৃত্বাধীন সরকারের বিরুদ্ধে মামলার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছে দেশটির মুসলিমদের একটি সংগঠন।

অস্ট্রিয়ার গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে গতকাল শনিবার আল-জাজিরা এ কথা জানিয়েছে।

আলজাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘পলিটিক্যাল ইসলাম ম্যাপ’ ওয়েবসাইট প্রকাশের জন্য মুসলিম ইয়ুথ অস্ট্রিয়া সরকারের কঠোর সমালোচনা করেছে। ম্যাপটিতে অস্ট্রিয়ার মসজিদ ও মুসলিম সংস্থার অবস্থান চিহ্নিত করা হয়েছে।

অস্ট্রিয়ার ইন্টিগ্রেশন মন্ত্রী সুসানে রাব গত বৃহস্পতিবার ‘ন্যাশনাল ম্যাপ অব ইসলাম’ নামের একটি ওয়েবসাইট উদ্বোধন করেন। সেখানে দেশটির ৬২০টির বেশি মসজিদের নাম-অবস্থান এবং কয়েকটি মুসলিম সংগঠন ও এর কর্মকর্তাদের নাম-ঠিকানাসহ বহির্বিশ্বের সঙ্গে তাদের সম্ভাব্য যোগাযোগ সংক্রান্ত তথ্য অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

বিষয়টিকে অস্ট্রিয়ায় বসবাসরত মুসলিমদের ওপর কালিমা লেপনের প্রচেষ্টা হিসেবে অভিহিত করেছে ইসলামিক রিলিজিয়াস কমিউনিটি ইন অস্ট্রিয়া (আইজিজিওই)।

সরকারকে সতর্ক করে দিয়ে সংগঠনটি বলেছে, এ ঘটনা দেশটির সমাজ ও গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার জন্যে বিপদ ডেকে আনতে পারে।

আইজিজিওইর ভাষ্য, সরকারের এমন প্রচারণা বর্ণবাদকে উসকে দিচ্ছে। পাশাপাশি সেখানকার ‘মুসলিমদের মারাত্মক নিরাপত্তা ঝুঁকিতে ফেলছে’।

চ্যান্সেলর সেবাস্টিয়ান কুর্জ তার ‘পলিটিক্যাল ইসলাম’ মন্তব্যের জন্য প্রতিনিয়ত সমালোচনার মুখে পড়ছেন।

ইন্টিগ্রেশন মন্ত্রীর গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘মুসলিমদের সন্দেহ করে ম্যাপটি তৈরি করা হয়নি। এর উদ্দেশ্য রাজনৈতিক মতাদর্শের সঙ্গে লড়াই, ধর্মের সঙ্গে না।’

সংবাদ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বছরের নভেম্বরে ভিয়েনায় প্রাণঘাতী হামলার পর অস্ট্রিয়ায় মুসলিমদের ওপর আক্রমণ বেড়েছে।

প্রকাশিত ম্যাপটি চ্যান্সেলর কুর্জের কনজারভেটিভ অস্ট্রিয়ান পিপলস পার্টি ও শরিক দল গ্রিন পার্টির মধ্যে উত্তেজনা তৈরি করেছে।

গ্রিন পার্টির মুখপাত্র ফাইকা এল-নাগাশি গত বৃহস্পতিবার এক টুইটার বার্তায় লিখেছেন, তার দলের কোনো সদস্য এই প্রক্রিয়ার সঙ্গে জড়িত নন এবং তাদেরকে আগে থেকে কিছু জানানো হয়নি।

Comments

The Daily Star  | English

Eid rush: People suffer as highways clog up

As thousands of Eid holidaymakers left Dhaka yesterday, many suffered on roads due traffic congestions on three major highways and at an exit point of the capital in the morning.

4h ago