ওমানেও হতে পারে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ভারত থেকে সরে যাওয়ার সম্ভাবনা দিন দিন জোরালো হচ্ছে। আইসিসির বোর্ড মিটিংয়ে অধিকাংশ বোর্ড সদস্যদের চাওয়া এমনই। করোনাভাইরাসের এ কঠিন পরিস্থিতিতে আসর সংযুক্ত আরব আমিরাতে সরানোর পক্ষে তারা। তবে সহ আয়োজক হিসেবে সংক্ষিপ্ত তালিকায় মধ্যপ্রাচ্যের আরেকটি দেশ ওমানকেও পরিকল্পনায় রেখেছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।
ছবি: সংগৃহীত

আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ভারত থেকে সরে যাওয়ার সম্ভাবনা দিন দিন জোরালো হচ্ছে। আইসিসির বোর্ড মিটিংয়ে অধিকাংশ বোর্ড সদস্যদের চাওয়া এমনই। করোনাভাইরাসের এ কঠিন পরিস্থিতিতে আসর সংযুক্ত আরব আমিরাতে সরানোর পক্ষে তারা। তবে সহ আয়োজক হিসেবে সংক্ষিপ্ত তালিকায় মধ্যপ্রাচ্যের আরেকটি দেশ ওমানকেও পরিকল্পনায় রেখেছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

ক্রিকেট ভিত্তিক ওয়েবসাইট ইএসপিএনক্রিকইনফো জানিয়েছে, মঙ্গলবারের সভাতেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ভারত থেকে সরিয়ে ফেলতে। কিন্তু বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলির অনুরোধে আগামী ২৮ জুন পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে ভারতকে। ভারতের কোভিডের সংক্রমণ কমতে শুরু করায় ভালো কিছুর আশা করছেন তিনি। তবে নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে হবে তাদের।

তবে ভেন্যু যেখানেই স্থানান্তরিত হোক মূল আয়োজক থাকবে ভারতের হাতে থাকবে বলে জানিয়েছে আইসিসি। এক বিবৃতিতে সংস্থাটি জানিয়েছে, 'আয়োজক দেশের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে এই মাসের শেষ দিকে। তবে টুর্নামেন্ট যেখানেই সরে যাক, বোর্ড নিশ্চিত করেছে এর আয়োজন স্বত্ব বিসিসিআইয়ের কাছেই থাকবে।'

এদিকে বর্তমানে ভারতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যু কিছুটা কমলেও নতুন শঙ্কা তৈরি হয়েছে। আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে হওয়ার কথা বিশ্বকাপ। কিন্তু স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, সে সময় ভারতে করোনাভাইরাসের তৃতীয় ঢেউ আসতে পারে। পাশাপাশি ভারতকে লাল তালিকায় রেখে যোগাযোগ নিষিদ্ধ করেছেন অনেক দেশই। তাই ভ্রমণ জটিলতার বিষয়টিও ভাবতে হচ্ছে আইসিসিকে।

Comments

The Daily Star  | English

Loan default now part of business model

Defaulting on loans is progressively becoming part of the business model to stay competitive, said Rehman Sobhan, chairman of the Centre for Policy Dialogue.

2h ago