এবার পারটেক্সের প্রশ্নবিদ্ধ ব্যাটিং

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে মেরে খেলার বদলে ধরে খেলা শুরু করেন পারটেক্সের ব্যাটসম্যানরা। আগের ম্যাচে মোহামেডানের সঙ্গে ঝড় তুলা আব্বাস মূসা আলভি নিজেকে গুটিয়ে রাখেন। এবার ১৭ রান করতেই তার লেগে যায় ২১ বল!
Abbas Musa
পারটেক্সের ব্যাটসম্যান আব্বাস মূসা। ফাইল ছবি

বৃহস্পতিবার রান তাড়ায় অস্বাভাবিক মন্থর ধরনের ব্যাট করে প্রশ্নের জন্ম দিয়েছিল ওল্ড ডিওএইচএস। এবার তাদের বিপক্ষেই ১৫ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে অস্বাভাবিক মন্থর ব্যাটিংয়ে  ম্যাচ হেরেছে পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাব।

শনিবার ভোর থেকে নামা বৃষ্টিতে মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে নির্ধারিত সময়ে শুরু হতে পারেনি পারটেক্স-ওল্ডডিওএইচএস ম্যাচ।

ম্যাচ নেমে আসে ১৫ ওভারে। তাতে ৪ উইকেটে মাত্র ৭৭ রান করতে পারে পারটেক্স। সহজ লক্ষ্য তাড়ায় ২১ বল আগেই ১০ উইকেটে জিতে যায় ডিওএইচএস।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে মেরে খেলার বদলে ধরে খেলা শুরু করেন পারটেক্সের ব্যাটসম্যানরা। আগের ম্যাচে মোহামেডানের সঙ্গে ঝড় তুলা আব্বাস মূসা আলভি নিজেকে গুটিয়ে রাখেন। এবার ১৭ রান করতেই তার লেগে যায় ২১ বল!

তাসামুল হক ১৮ করে ২৫ বল খুইয়ে। প্রথম ৭ ওভারে আসে কেবল ২৮ রান! এক পর্যায়ে পঞ্চাশ পেরুনো নিয়েই জাগে শঙ্কা। অথচ উইকেট তখন বাকি অনেকগুলোই। মিরপুরের সকালের উইকেট থাকে একটু মন্থর, রান করা হয় কঠিন। তবে ১৫ ওভারের ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে তেঁড়েফুড়ে খেলাটাই স্বাভাবিক। পারটেক্সের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে দেখা যায়নি হেলদোল।

রান তাড়ায় আবাহনীর বিপক্ষে শ্লথ ব্যাট করা ডিওএইচএস ওপেনাররা এবার খেলেছেন সাবলীলভাবে। রাকিন আহমেদ ৩৬ বলে অপরাজিত থাকেন ৪৩ রানে। আনিসুল ইসলাম ইমন ৩৩ বলে করেন ৩৩ রান।

তৃতীয় ম্যাচে এসে প্রথম জয় পায় ওল্ড ডিওএইচএস। টানা তৃতীয় হারের স্বাদ পায় পারটেক্স। 

 

 

Comments

The Daily Star  | English

Dhaka, Washington eye new chapter in bilateral ties

Says Foreign Minister Hasan Mahmud after meeting US delegation

1h ago