ভারতে নারী পাচার: স্বামীসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে আরেক তরুণীর মামলা

ভারতে পাচার হওয়ার পর সেখান থেকে পালিয়ে দেশে ফিরে আসা আরও এক তরুণী রাজধানীর হাতিরঝিল মামলা করেছেন। মানবপাচার ও বিদেশে যৌনকর্মে বাধ্য করার অভিযোগে স্বামীসহ পাচারকারী চক্রের নয় জনের নাম উল্লেখ করে গতকাল বৃহস্পতিবার মামলা করেন ওই তরুণী।
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

ভারতে পাচার হওয়ার পর সেখান থেকে পালিয়ে দেশে ফিরে আসা আরও এক তরুণী রাজধানীর হাতিরঝিল মামলা করেছেন। মানবপাচার ও বিদেশে যৌনকর্মে বাধ্য করার অভিযোগে স্বামীসহ পাচারকারী চক্রের নয় জনের নাম উল্লেখ করে গতকাল বৃহস্পতিবার  মামলা করেন ওই তরুণী।

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের এডিসি হাফিজ আল ফারুক দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, ২০ বছর বয়সী ওই তরুণী গত ৩ মে পালিয়ে দেশে ফিরেন। তার স্বামী জাহিদুল ইসলাম রনি (২৭) তাকে ৪০ হাজার টাকায় পাচারকারী চক্রের কাছে বিক্রি করে দিয়েছিলেন বলে তার অভিযোগ।

মামলার বিবরণী অনুযায়ী, ভালো বেতনে চাকরির কথা বলে রনি এ বছরের ৭ জানুয়ারি ওই তরুণীকে 'নদী ম্যাডামের' পাচারকারী চক্রের হাতে তুলে দেন। নদী তাকে ভারতের পাচারকারী চক্রের সদস্যদের কাছে ৭০ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেন। পরে সীমান্ত পার করে ওই তরুণীকে ভারতের চেন্নাই নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চার মাস আটকে রেখে তার ওপর যৌন নির্যাতন করেন চক্রের সদস্যরা। গত ৩ মে তিনি পালিয়ে ফিরতে সক্ষম হন।

এডিসি হাফিজ আল ফারুক বলেন, ‘তরুণীর স্বামীসহ দেশে অবস্থানকারী মানব পাচারকারী চক্রের সদস্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’

এর আগে, ভারতের বেঙ্গালুরু থেকে দেশে পালিয়ে আসা আরেক তরুণী গত ১ জুন রাতে হাতিরঝিল থানায় রিফাদুল ইসলাম হৃদয় ওরফে হৃদয় বাবুসহ (২৬) পাচারকারী চক্রের ১২ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা করেন। গত ৭ মে দেশে ফিরেছেন তিনি।

৩ মে ফিরে আসা তরুণীকে পাচারের সঙ্গেও টিকটক হৃদয়ের যোগসূত্র আছে কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন এডিসি হাফিজ। 

এক তরুণীকে নির্যাতন ও যৌন নিপীড়নের ভিডিও সামাজিক যোগযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর গত ২৭ মে ভারতের পুলিশ হৃদয়সহ আর পাঁচ বাংলাদেশিকে বেঙ্গালুরু থেকে গ্রেপ্তার করে। পরে বাংলাদেশের আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী প্রায় ৫০ সদস্যের একটি আন্তর্জাতিক পাচারকারী চক্রের সন্ধান পায়।

এখন পর্যন্ত, তিন বাংলাদেশি তরুণী ভারত থেকে পালিয়ে দেশে ফিরতে পেরেছেন। এসব ঘটনায় হাতিরঝিল থানায় মানব পাচার আইনে তিনটি মামলা করা হয়েছে। পৃথক অভিযান চালিয়ে পুলিশ ও র‌্যাব এখন পর্যন্ত ১২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। এ ছাড়া, ভারতের পুলিশ পাচারকাজে জড়িত ১২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তারদের বেশিরভাগই বাংলাদেশি।

আরও পড়ুন:

ভারতে নারী পাচার: সাতক্ষীরা থেকে আরও ২ জন গ্রেপ্তার

ভারতে নারী পাচারকারী চক্রের ৩ সদস্য সাতক্ষীরায় গ্রেপ্তার

টিকটকে সক্রিয় আন্তর্জাতিক নারী পাচার চক্র: পুলিশ

টিকটক থেকে পাচার, ভয়াবহ অভিজ্ঞতার গল্প

৫ বছরে ৫০০ তরুণী ভারতে পাচার, ‘মূল হোতা’ ‘বস রাফি’সহ গ্রেপ্তার ৪

পালানোর চেষ্টাকালে পুলিশের গুলিতে ভারতে গ্রেপ্তার ২ বাংলাদেশি আহত

তরুণীকে ধর্ষণ-নির্যাতন: বেঙ্গালুরু থেকে ৫ বাংলাদেশিকে গ্রেপ্তার করেছে ভারতীয় পুলিশ

Comments

The Daily Star  | English

44 lives lost to Bailey Road blaze

33 died at DMCH, 10 at the burn institute, and one at Central Police Hospital

8h ago