রোনালদোর মনে হচ্ছে প্রথমবার ইউরো খেলতে নামছেন!

আজ (মঙ্গলবার) বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় ইউরোতে নিজেদের প্রথম ম্যাচে খেলতে নামবে পর্তুগাল। বুদাপেস্টে তাদের প্রতিপক্ষ স্বাগতিক হাঙ্গেরি।
Cristiano Ronaldo
ছবি: উয়েফা

ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে প্রথমবার দেখা গিয়েছিল সেই ২০০৪ সালে। এরপর একে একে খেলেছেন চার আসর। এবার টানা পঞ্চম ইউরো খেলতে নামা এই পর্তুগিজ মহাতারকার মনে হচ্ছে, এবারই প্রথম ইউরো খেলতে নামছেন। ৩৬ পেরুনো ক্যারিয়ারের পড়তি সময়ে নিজের আগামী নয় রোনালদোর মাথায় কেবল পর্তুগালকে জেতানোর চিন্তা।

আজ (মঙ্গলবার) বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় ইউরোতে নিজেদের প্রথম ম্যাচে খেলতে নামবে পর্তুগাল। বুদাপেস্টে 'এফ' গ্রুপে তাদের প্রতিপক্ষ স্বাগতিক হাঙ্গেরি। 

প্রথম ম্যাচের আগে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে পর্তুগাল অধিনায়কের কাছে গেছে অনেক প্রশ্ন। তার অনেকটাই রোনালদোর নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে। এই সময়ে তার জুভেন্টাস ছেড়ে চলে যাওয়ার গুঞ্জনও এসেছে আলোচনায়। তবে এসব কিছু নয়, রোনালদো মনে করেন প্রথম ইউরো খেলার মতই রোমাঞ্চে ভাসছেন তিনি, ‘আমি জাতীয় দলের খেলায় মনোযোগ দিচ্ছি। এত বড় প্রতিযোগিতা প্রতিদিন খেলার সুযোগ আসে না। এটা আমার ক্যারিয়ারের পঞ্চম ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ। কিন্তু মনে হচ্ছে প্রথম খেলতে নামছি।’

‘১৮ বছর থেকে আমি সর্বোচ্চ পর্যায়ে খেলে আসছি। গুঞ্জন এখন আমাকে বিরক্ত করতে পারে না। যা হবে ভালো হবে। আমার জুভেন্টাসে থাকা না থাকা এখন একেবারেই গুরুত্বপূর্ণ কিছু নয়। আপাতত আমার সব মনোযোগ পর্তুগালকে ঘিরে।’

২০১৬ সালে ফ্রান্সকে হারিয়ে প্রথমবার ইউরো চ্যাম্পিয়ন হয় পর্তুগাল। বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা এবারও আসরের ফেভারিট। ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলের এক ঝাঁক দারুণ প্রতিভা নিয়ে গড়া তাদের দল। মেধাবী তরুণে ঠাসা দলটি কেমন করবে তার জন্য অপেক্ষা করতে বললেন পাঁচ বারের বর্ষ সেরা ফুটবলার,  ‘২০১৬ সালে তূলনামূলক অভিজ্ঞ দল ছিল সেই তুলনায় আমাদের দলটা তরুণ। ভাল না খারাপ করব সেটা পারফরম্যান্সই বলবে। ’

রোনালদোর সামনে অপেক্ষা করছে একটি রেকর্ডও। পর্তুগালের  জার্সিতে ১৭৪ ম্যাচে ১০৪ গোল আছে তার। আর ৫ গোল হলেই হয়ে যাবে বিশ্বরেকর্ড। ইরানের আলি দাইয়িকে পেছনে ফেলে তিনি হয়ে যাবেন আন্তর্জাতিক ফুটবলের সর্বোচ্চ গোলদাতা। তবে এমন রেকর্ড নিয়েও তার ভেতর কাজ করছে না আলাদা কিছু, ‘অবশ্যই এটা দারুণ একটি রেকর্ড হবে। তবে এটা নিয়ে ভেবে পড়ে থাকতে চাই না। আমাদের লক্ষ্য পর্তুগালকে টানা দ্বিতীয় ইউরোর শিরোপা এনে দেওয়া।’

Comments

The Daily Star  | English

Eid rush: People suffer as highways clog up

As thousands of Eid holidaymakers left Dhaka yesterday, many suffered on roads due traffic congestions on three major highways and at an exit point of the capital in the morning.

4h ago