কোচ নারী ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার ২, শাস্তির দাবিতে টাঙ্গাইলে মানববন্ধন

টাঙ্গাইলের সখীপুরে কোচ সম্প্রদায়ের এক নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। আজ মঙ্গলবার টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার বিষয়টি দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন।
টাঙ্গাইলে কোচ সম্প্রদায়ের এক নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় আসামিদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বাংলাদেশ কোচ আদিবাসী ইউনিয়নের মানববন্ধন। ছবি: সংগৃহীত

টাঙ্গাইলের সখীপুরে কোচ সম্প্রদায়ের এক নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। আজ মঙ্গলবার টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার বিষয়টি দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন।

গতকাল সোমবার দিবাগত রাতে জেলার নাগরপুর ও মির্জাপুর থানার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন-সখিপুরের বড়চালা এলাকার দিনা সরকার (৩০) ও মন্টু সরকার (৩২)।

পুলিশ সুপার দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'মামলার পর ডিবি পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়ে আসামিদের দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করে। অপর আসামিকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।'

এ দিকে, এ ঘটনায় সব আসামিদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে টাঙ্গাইলে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ কোচ আদিবাসী ইউনিয়ন। টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কোচ আদিবাসী ইউনিয়নের যুগ্ম-আহবায়ক রতন কুমার রায় ও বিশ্বজিৎ কোচ, ঘাটাইল উপজেলার শাখার সভাপতি পরিমল চন্দ্র কোচ, বাংলাদেশ আদিবাসী ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অলিক মৃ, বাংলাদেশ গারো ছাত্র সংগঠন কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি জন যেত্রা প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, 'স্বাধীনতার ৫০ বছরে অসংখ্য নারী ধর্ষণ ও নির্যাতনের শিকার হয়েছে। কিন্তু, সেগুলোর বেশিরভাগেরই যথাযথ বিচার হয়নি। সখীপুরে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় দুইজন গ্রেপ্তার হলেও একজন ধরা ছোঁয়ার বাইরে রয়েছে।'

এ ধর্ষণের ঘটনার সঙ্গে জড়িত সবার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন তারা।

গত ১০ জুন দিবাগত রাতে টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলায় এক কোচ নারীকে (৫০) ধর্ষণ করা হয়। আহত নারীকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে।

১৩ জুন বিকেলে ওই নারী বাদি হয়ে দিনা সরকার, মন্টু সরকার (৩২) ও সবদুল মিয়াকে (৩৮) আসামি করে সখীপুর থানায় মামলা করেন।

Comments

The Daily Star  | English