ভারত-নিউজিল্যান্ড ফাইনাল ড্র বা টাই হলে কী ঘটবে?

ম্যাচটা ড্র হতে পারে। হতে পারে টাইও। সেক্ষেত্রে কী ঘটবে?
play abondoned
ছবি: রয়টার্স

আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরের শিরোপা জয়ের প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আছে ভারত ও নিউজিল্যান্ড। দুই বছরের চক্রে (২০১৯-২১) বাকি সাতটি দলকে পেছনে ফেলে তারা ফাইনালে জায়গা করে নিলেও জয়ী দলের দেখা পাওয়ার নিশ্চয়তা নেই!

কারণ, ম্যাচটা ড্র হতে পারে। হতে পারে টাইও। সেক্ষেত্রে কী ঘটবে?

২০১৯ সালের জুলাইতে আনুষ্ঠানিকভাবে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের উদ্বোধনের ঘোষণা দেয় আইসিসি। পরের মাস থেকে মাঠে গড়িয়েছিল প্রতিযোগিতাটি। নিয়ম অনুসারে, ফাইনাল ম্যাচটি ড্র কিংবা টাই হলে অংশগ্রহণকারী দুই দলকে যৌথভাবে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হবে। সেক্ষেত্রে ফাইনালিস্টদের জন্য বরাদ্দ করা ২৪ লাখ ডলার প্রাইজমানিও ভাগাভাগি করে নেবে তারা। এমনিতে চ্যাম্পিয়ন দল ট্রফির সঙ্গে পাবে ১৬ লাখ ডলার। রানার্স-আপ দলের জুটবে ৮ লাখ ডলার।

ফাইনালের জন্য একদিন রিজার্ভ ডের ব্যবস্থা রয়েছে। তবে টেস্টের ফল আনার জন্য তা কাজে লাগানো যাবে না। খারাপ আবহাওয়ার জন্য নির্ধারিত সময়ের চেয়ে খেলা কম হলে তা পুষিয়ে নিতে ষষ্ঠ দিনে যেতে পারে ম্যাচ। সেক্ষেত্রে লাগবে ম্যাচ রেফারির অনুমোদন। রিজার্ভ ডেতে খেলা হবে কিনা সে সিদ্ধান্ত তিনি নেবেন পঞ্চম দিনে। কারণ, তার আগেও টেস্টের ফল হয়ে যেতে পারে।

একটু খুলে বলা যাক। সাধারণত কোনো টেস্ট ম্যাচে ৩০ ঘণ্টা খেলা হয়ে থাকে। পাঁচদিনের প্রতিদিন ছয় ঘণ্টা করে। রিজার্ভ ডে তখনই বিবেচনায় আসবে যদি কোনো নির্দিষ্ট দিনের নির্ধারিত সময় পূরণ না হয়। উদাহরণস্বরূপ, বৃষ্টির কারণে কোনো দিনের খেলা এক ঘণ্টা বন্ধ থাকলে ওই দিনে বা পরবর্তীতে ম্যাচ অফিসিয়ালরা তা পুষিয়ে নিতে পারলে রিজার্ভ ডে বিবেচনায় আসবে না। কিন্তু পুরো দিন ভেসে গেল অথচ পুষিয়ে নেওয়া গেল মাত্র তিন ঘণ্টা, তখন রিজার্ভ ডেতে গড়াবে খেলা।

শুক্রবার বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের প্রথম দিন ভেসে গেছে বৃষ্টিতে। পুরো দিনই হয়েছে ভারী বর্ষণ। তাই বল মাঠে গড়ানো তো দূরে থাক, হয়নি টসও। তাই রিজার্ভ ডে (২৩ জুন) হয়ে উঠেছে আলোচনার বিষয়বস্তু।

সাউদাম্পটনের হ্যাম্পশায়ার বৌলে ভারত ও নিউজিল্যান্ডকে কাটাতে হয়েছে অলস সময়। বৃষ্টির দাপটের কারণে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করেও আম্পায়াররা খেলা শুরুর অনুকূল পরিস্থিতি দেখতে পাননি। তাই স্থানীয় সময় দুপুর পৌনে তিনটায় (বাংলাদেশ সময় রাত পৌনে আটটা) প্রথম দিনের খেলা পরিত্যক্তের ঘোষণা দেন তারা।

একদিন নষ্ট হওয়ায় পরের চার দিন বাড়তি আধা ঘণ্টা করে খেলা হবে। ম্যাচটি শেষ পর্যন্ত রিজার্ভ ডেতে গড়াবে কিনা তা সময়ই বলে দেবে। ওই পরিস্থিতিতে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভার থাকবে ম্যাচ রেফারি ক্রিস ব্রডের ওপর।

Comments

The Daily Star  | English

Inadequate Fire Safety Measures: 3 out of 4 city markets risky

Three in four markets and shopping arcades in Dhaka city lack proper fire safety measures, according to a Fire Service and Civil Defence inspection report.

7h ago