সেই ব্রাজিলিয়ান ভক্তের সঙ্গে দেখা করবেন মেসি, দিবেন অটোগ্রাফও

আর্জেন্টিনার তারকা লিওনেল মেসির ট্যাটু পিঠে আঁকিয়ে এমনই এক চমকপ্রদ কাণ্ড ঘটিয়েছেন এক ব্রাজিলিয়ান।

প্রতিবেশী হলেও ব্যাপারটা যদি হয় ফুটবল নিয়ে, তখন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর ভূমিকায় থাকে দুই দেশের ভক্তরা। প্রতিপক্ষকে খেপিয়েই যেন মজা পান তারা। সেখানে প্রতিপক্ষ দলের খেলোয়াড়ের ভক্ত হওয়াটা বিরলই বটে। আর প্রতিপক্ষ দলের কোনো খেলোয়াড়ের ছবি শরীরে ট্যাটু করা তো রীতিমতো বিস্ময়কর! আর্জেন্টিনার তারকা লিওনেল মেসির ট্যাটু পিঠে আঁকিয়ে এমনই এক চমকপ্রদ কাণ্ড ঘটিয়েছেন এক ব্রাজিলিয়ান।

সম্প্রতি ঘটনাটি তুলে আনে আর্জেন্টিনার ক্রীড়াভিত্তিক সংবাদমাধ্যম টিওয়াইসি স্পোর্টস। এক ব্রাজিলিয়ান ফুটবল ভক্ত তার পিঠের প্রায় পুরোটা জুড়ে ট্যাটু করেছেন মেসির ছবি। টিওয়াইসির সামাজিক মাধ্যমে আপলোড করা সে ছবি মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায় সারা বিশ্বে। যা নজরে আসে আর্জেন্টাইন অধিনায়ক মেসিরও।

শনিবার সকালে কোপা আমেরিকায় উরুগুয়ের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার ম্যাচে গ্যালারিতে ছিলেন সেই ভক্ত মাতাইস পেল্লিচ্চিওনি। গায়ে মেসির নাম ও নম্বর ১০ লেখা আর্জেন্টিনার জার্সি। পুরো ম্যাচেই সমর্থন দেন আর্জেন্টিনাকে। ম্যাচ শেষে ধরা পড়েন টিওয়াইসির ক্যামেরায়। একজন ব্রাজিলিয়ানের এমন অকুণ্ঠ সমর্থনের পর তাকে নিয়ে আগ্রহ দেখায় সংবাদমাধ্যমটি। এরপর সেই ভক্ত যা দেখান, তা ছাপিয়ে যায় যেন ফুটবল নিয়ে সব রকমের আবেগকে!

জার্সি উঠিয়ে পিঠে আঁকা ট্যাটু দেখান পেল্লিচ্চিওনি। স্প্যানিশ লা লিগার ২০১৬/১৭ মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে মেসির শেষ মুহূর্তের গোলে ৩-২ গোলে জিতেছিল বার্সেলোনা। তারপর জার্সি খুলে মেসি করেছিলেন স্মরণীয় উদযাপন। সেই মুহূর্তটা পিঠ জুড়ে তুলে ধরেছেন ওই ভক্ত।

সামাজিক মাধ্যমে ক্যাপশনে টিওয়াইসি লিখেছে, 'মেসির ট্যাটুর সন্ধান পাওয়া গেছে, যা তার পিঠের পুরোটা জুড়ে রয়েছে।'

বিষয়টি নজর এড়ায়নি সময়ের অন্যতম সেরা ফুটবলার মেসির। এমন কাণ্ড দেখে বাকি সবার মতো অবাক তিনিও। পোস্টে কমেন্ট করে তিনি লিখেছেন, 'অসাধারণ ট্যাটু। খুব ভালো লেগেছে। আমি এটা দেখতে চাই এবং স্বাক্ষর করতে চাই।'

সবমিলিয়ে বিষয়টি বেশ বিস্ময় ছড়িয়েছে সারা বিশ্বে। কিন্তু এটা তেমন কোনো ঘটনা নয় বলে জানিয়েছেন মেসির সেই ব্রাজিলিয়ান ভক্ত। কারণটাও ব্যাখ্যা করেছেন তিনি, 'আমি মেসির বড় একজন ভক্ত। এটাকে অনেকেই পাগলামি বলে। তবে মেসির কারণে এটা খুবই স্বাভাবিক।'

যথার্থই বলেছেন সেই ভক্ত, মেসি হলে সবই সম্ভব!

Comments

The Daily Star  | English

Death came draped in smoke

Around 11:30pm, there were murmurs of one death. By then, the fire had been burning for over an hour.

9h ago