ঝড়ো সেঞ্চুরিতেও দলকে জেতাতে পারলেন না হাসানুজ্জামান

৪৮ বলে সেঞ্চুরি করা হাসানুজ্জামান আউট হন ৫২ বলে ১০৫ রান করে। ১১ চারের সঙ্গে এই ওপেনার মেরেছেন ৭ ছক্কা।
Hasanuzzaman

রাকিন আহমেদের প্রায় সেঞ্চুরি আর মোহাইমিনুল হকের ফিফটিতে বড় পূঁজি পেয়েছিল ওল্ড ডিওএইচএস। ঝড়ো ব্যাটিংয়ে হাসানুজ্জামান সেঞ্চুরি করলেও পারলেন না পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবকে জেতাতে।

বিকেএসপিতে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টির রেলিগেশন লিগে পারটেক্সকে ২৩ রানে হারিয়েছে ওল্ড ডিওএইচএস। আগে ব্যাট করে ডিওএইচএসের করা ১৯৯ রানের জবাবে ১৭৬ পর্যন্ত যেতে পেরেছে পারটেক্স।

৪৮ বলে সেঞ্চুরি করা হাসানুজ্জামান আউট হন ৫২ বলে ১০৫ রান করে। ১১ চারের সঙ্গে এই ওপেনার মেরেছেন ৭ ছক্কা। এবারের প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টিতে এটি দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। এর আগে সেঞ্চুরি করেছিলেন ব্রাদার্সের মিজানুর রহমান। 

বিশাল রান তাড়ায় প্রথম বলেই সায়েম আলমকে হারায় পারটেক্স। চতুর্থ বলে ফেরেন জনি তালুকদার। কোন রান করার আগেই দুই উইকেট পড়ে গেলে আব্বাস মূসাকে নিয়ে ঘুরে দাঁড়ান হাসানুজ্জামান। আব্বাস খেলছিলেন কিছুটা মন্থর। ২৯ বলে ৩১ রান করে ফিরেছেন তিনি।

এরপর হাসানুজ্জামান প্রায় একা খেলে দলকে এগিয়ে নেন। কিন্তু নিজের পাশে পাননি আর কাউকে। ১৬তম ওভারে তিনি আউট হওয়ার পর আর খেলায় থাকেনি পারটেক্স। 

এর আগে ব্যাট করতে নেমে ঝড় বইয়ে দেন রাকিন। আনিসুল ইসলাম ইমনকে নিয়ে পাওয়ার প্লের ছয় ওভারে আনেন ৬০ রান। আনিসুল ২৩ বলে ৩৪ রান করে আউট হওয়ার পর মাহমুদুল হাসান জয়ও দ্রুত বিদায় নিয়েছিলেন।

এরপর মোহাইমিনুলকে নিয়ে ইনিংস শেষ করে আসেন রাকিন। মাত্র ৫৮ বলে ১১ চার ৩ ছক্কায় করেন ৯২। ৩৫ বলে ৫০ রানে অপরাজিত ছিলেন মোহাইমিন। 

Comments

The Daily Star  | English

Through the lens of Rafiqul Islam

National Professor Rafiqul Islam’s profound contribution to documenting the Language Movement in Bangladesh was the culmination of a lifelong passion for photography.

19h ago