গাবতলী-পাটুরিয়া: হেঁটে, রিকশা-অটোরিকশা-লোকাল বাসে গ্রামে ছুটছে মানুষ

আগামী সোমবার থেকে শুরু হতে যাওয়া সাত দিনের লকডাউনকে সামনে রেখে রাজধানী ছেড়ে যাচ্ছে মানুষ। তবে, কোভিড-১৯ সংক্রমণ রোধে গত ২৩ জুন থেকে ঢাকা থেকে সব দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ করে দেওয়ায় রাস্তাঘাটে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে তাদের।
গাবতলী দিয়ে ঢাকা ছাড়ছেন অনেকেই। পরিবহন ভোগান্তিতে পায়ে হেঁটেই যাচ্ছেন অনেক পথ। ছবি: পলাশ খান/স্টার

আগামী সোমবার থেকে শুরু হতে যাওয়া সাত দিনের লকডাউনকে সামনে রেখে রাজধানী ছেড়ে যাচ্ছে মানুষ। তবে, কোভিড-১৯ সংক্রমণ রোধে গত ২৩ জুন থেকে ঢাকা থেকে সব দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ করে দেওয়ায় রাস্তাঘাটে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে তাদের।

আজ শনিবার গাবতলী গিয়ে দ্য ডেইলি স্টারের আলোকচিত্রী পলাশ খান দেখেছেন, ঢাকা ছাড়ার উদ্দেশে পরিবারসহ শত শত মানুষ ব্যাগ ও অন্যান্য দরকারি জিনিস নিয়ে সেখানে জড়ো হয়েছেন। লকডাউন আরও বাড়ানো হবে বলে মনে করছেন তারা।

ঘরমুখো এসব মানুষ প্রথমে রিকশা বা অটোরিকশায় করে গাবতলী পৌঁছাচ্ছেন। এরপর পায়ে হেঁটে গাবতলী ব্রিজ পার হচ্ছেন এবং আমিন বাজার থেকে লোকাল বাসে করে গন্তব্যে পৌঁছানোর চেষ্টা করছেন।

গাবতলী দিয়ে ঢাকা ছাড়ছেন অনেকেই। পরিবহন ভোগান্তিতে পায়ে হেঁটেই যাচ্ছেন অনেক পথ। ছবি: পলাশ খান/স্টার

আগামীকাল লকডাউন শুরুর আগের দিন যাত্রীর সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

এ ছাড়া, ঢাকামুখী মানুষের ভিড়ও বাড়ছে। হেঁটে গাবতলী ব্রিজ পার হয়ে একইভাবেই রাজধানীতে প্রবেশ করছে মানুষ।

আমাদের মানিকগঞ্জ সংবাদদাতা জানিয়েছেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে আজ মোটরসাইকেল, অটোরিকশা ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার সংখ্যা বেড়ে গেছে।

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথ দিয়ে সব ধরনের যানবাহন পার হচ্ছে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা আঞ্চলিক অফিসের উপ-পরিচালক জিল্লুর রহমান জানান, টার্মিনালে মানুষের ভিড় বাড়ায় ১৬টি ফেরির সবগুলোকেই প্রস্তত রাখা হয়েছে। যাত্রী ও যানবাহন পারাপার ঠিকভাবে চলছে বলে জানান তিনি।

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া রুটেও যানবাহন ও মানুষের ভিড়। ছবি: স্টার

সোমবার থেকে সারাদেশকে পুরোপুরি লকডাউনের আওতায় আনা হবে। এবার জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কাউকে বাড়ির বাইরে যেতে দেওয়া হবে না বলে গতকাল সন্ধ্যায় তথ্য অধিদপ্তরের (পিআইডি) এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

জনপ্রশাসনমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন দ্য ডেইলি স্টারকে জানিয়েছেন, লকডাউন যথাযথভাবে কার্যকর করতে পুলিশের পাশাপাশি সেনাবাহিনী ও বিজিবিও মোতায়েন করা হবে।

Comments

The Daily Star  | English

Submarine cable breakdown disrupts Bangladesh internet

It will take at least 2 to 3 days to resume the connection

1h ago