শীর্ষ খবর

আর্সেনিক মোকাবিলায় মিনহাজের সাফল্য, পেলেন অশোকা ফেলোশিপ

পানি থেকে আর্সেনিক দূর করার প্রযুক্তি উদ্ভাবনকারী মিনহাজ চৌধুরী অশোকা ফেলোশিপ পেয়েছেন। তার ‘ড্রিংকওয়েল’ নামের সামাজিক উদ্যোগ দক্ষিণ এশিয়ায় বিশুদ্ধ পানীয় জলের সংকট সমাধানে অবদান রাখছে। যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিনস বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক মিনহাজ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিক।
মিনহাজ চৌধুরী

পানি থেকে আর্সেনিক দূর করার প্রযুক্তি উদ্ভাবনকারী মিনহাজ চৌধুরী অশোকা ফেলোশিপ পেয়েছেন। তার ‘ড্রিংকওয়েল’ নামের সামাজিক উদ্যোগ দক্ষিণ এশিয়ায় বিশুদ্ধ পানীয় জলের সংকট সমাধানে অবদান রাখছে। যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিনস বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক মিনহাজ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিক।

মিনহাজের আবিষ্কৃত হাইব্রিড আয়ন এক্সচেঞ্চ রজন ভূগর্ভস্থ পানি থেকে ক্ষতিকর আর্সেনিক ও ফ্লুরাইড দূর করতে সক্ষম। এই পদ্ধতিতে শোধন করা পানিতে আর্সেনিক বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কর্তৃক নির্ধারিত নিরাপদ মাত্রার মধ্যে থাকে। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, জিরকোনিয়াম থেকে তৈরি বিশেষ এক ধরনের পদার্থ কাজে লাগিয়ে পানি শোধনের এই কাজটি চলে।

জিরকোনিয়াম সমৃদ্ধ রজন অন্যান্য প্রযুক্তির তুলনায় পানি থেকে দশ গুণ বেশি আর্সেনিক ও ফ্লুরাইড পৃথকে সক্ষম। স্থানীয়ভাবে সংগ্রহ করা উপকরণ থেকেই এই রজন তৈরি করা হয়। পাঁচ বছর পর্যন্ত কাজ করতে সক্ষম এই রজন।

এই প্রযুক্তিতে খুব সামান্য বিদ্যুৎ প্রয়োজন হয়। যে পরিমাণ পানি দেওয়া হয় তার ৯৯ শতাংশই বিশুদ্ধ হয়ে আসে ও মাত্র দুই শতাংশ অপচয় হয়।

অশোকা ইনোভেটর ফর দ্য পাবলিক (বাংলাদেশ)-এর কান্ট্রি ডিরেক্টর আব্দুল্লাহ চৌধুরী মিনহাজের ফেলোশিপের কথা ঘোষণা করেন। অশোকা বিশ্বের শীর্ষ সামাজিক উদ্যোক্তাদের একটি সংগঠন।

Click here to read the English version of this news

Comments