‘লো স্কোরিং ম্যাচ জেতা বরং বেশি কঠিন’

বিপিএলের গত আসরে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের খুলনা টাইটান্সের বেশিরভাগ জেতা ম্যাচ ছিল লো স্কোরিং। যাতে ব্যাটিং এর পাশাপাশি বল হাতেও দারুণ অবদান ছিল অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। এবার এসেও তাদের প্রথম জয়ে দেখা গেল একই দৃশ্য। তবে লো স্কোরিং হলে নাকি জেতাটা আরও কঠিন।
Mahmudullah
বল হাতে ১২ রানে ২ উইকেট নেওয়ার পর ব্যাট হাতে ২৭ রান করে ম্যাচ সেরা মাহমুদউল্লাহ। ছবি: ফিরোজ আহমেদ

বিপিএলের গত আসরে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের খুলনা টাইটান্সের বেশিরভাগ জেতা ম্যাচ ছিল লো স্কোরিং। যাতে ব্যাটিং এর পাশাপাশি বল হাতেও দারুণ অবদান ছিল অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। এবার এসেও তাদের প্রথম জয়ে দেখা গেল একই দৃশ্য। তবে লো স্কোরিং হলে নাকি জেতাটা আরও কঠিন।

এবার প্রথম ম্যাচে খুলনার বোলারদের পিটিয়ে ২০২ রান করে ফেলেছিল ঢাকা ডায়নামাইটস। সেই রান তাড়ায় খুলনার হার ৬৫ রানের। পরের ম্যাচে টানা তিন ম্যাচ জেতা সিলেট সিক্সার্সকে মাত্র ১৩৫ রানে বেধে ফেলে মাহমুদউল্লাহর দল। ১২ রানে দুই উইকেট নেন মাহমুদউল্লাহ। ওই রান তাড়া করে ৪ উইকেট হারিয়েই জিতে যায় টাইটান্স।

ম্যাচ শেষে অধিনায়ক জানালেন, ‘লো স্কোরিং হলে টি-টোয়েন্টি ম্যাচে জেতা আরও বেশি ডিফিকাল্ট। ১৩০ যদি আপনি চেজ করতে যান তাহলে অনেক সময় ডাবল মাইন্ড থাকে যে আমি মারব কি মারব না। ১৬০-১৭০ হলে আপনি জানেন আপনাকে মারতেই হবে। আমার মনে হয় ওটা বরং ইজি।’

খুলনা এই ম্যাচে একজন বাড়তি ব্যাটসম্যান নিয়ে নেমেছিল। পেস অলরাউন্ডার জোফরা আর্চার ২৫ রানে দুই উইকেট নেওয়ায় বোলিংয়ে ভুগতে হয়নি, ‘যেহেতু রাতে খেলা। স্পিনাররা ওইভাবে সুবিধা পান না। আমাদের ব্যাটিং ডেপথও ভাল ছিল না। তাই এদিকে শক্তি বাড়িয়েছি।’

এই টুর্নামেন্টে বেশিরভাগ দলই পরে ব্যাট করে জিতেছে। টস হয়ে উঠেছে গুরুত্বপূর্ন, ‘টস সব সময়েই গুরুত্বপূর্ন রাতের ম্যাচে। শিশিরের কারনে বল গ্রিপ করতে সমস্যা হয়’

সিলেটের উইকেটে দুটি দুশো ছাড়ানো স্কোর ছিল। রান পেয়েছে সব দলই। সিলেটের উইকেটের প্রশংসাও করলেন মাহমুদউল্লাহ। ঢাকার কেমন উইকেট হবে এর উপর নির্ভর করছে তাদের পরিকল্পনা, ‘ঢাকায় কেমন উইকেটে খেলা হবে। তার উপর আমাদের টিম কম্বেনেশন ঠিক করব।’

Comments

The Daily Star  | English

Dhaka footpaths, a money-spinner for extortionists

On the footpath next to the General Post Office in the capital, Sohel Howlader sells children’s clothes from a small table.

6h ago