কলকাতায় আজ থেকে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ বই মেলা

​কলকাতার মোহরকুঞ্জ মাঠে আজ বুধবার থেকে শুরু হচ্ছে ১০ দিনব্যাপী বাংলাদেশের সৃজনশীল বই ও প্রকাশনার ‘বাংলাদেশ বইমেলা’।
Bangladesh Book Fair in Kolkata
কলকাতায় সপ্তম বাংলাদেশ বইমেলা ২০১৭ উপলক্ষে উপহাইকমিশনে সংবাদ সম্মেলন। ছবি: স্টার

কলকাতার মোহরকুঞ্জ মাঠে আজ বুধবার থেকে শুরু হচ্ছে ১০ দিনব্যাপী বাংলাদেশের সৃজনশীল বই ও প্রকাশনার ‘বাংলাদেশ বইমেলা’।

আজ বুধবার বিকাল ৪টায় মেলার উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। অনুষ্ঠানে যোগ দিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় অর্থমন্ত্রী কলকাতায় পৌঁছেছেন।

মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত থাকবেন কলকাতার মেয়র ও দমকলমন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়। এর এতে সভাপতিত্ব করবেন কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাসের ডেপুটি হাইকমিশনার তৌফিক হাসান।

বাংলা একাডেমি ছাড়াও বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় ৪৪টি প্রকাশনা সংস্থা ৭তম বাংলাদেশ বইমেলায় অংশ নিচ্ছে। গত বছর মেলায় ৫২টি প্রকাশনা সংস্থা অংশ নিয়েছিল।

কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাসে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক সংবাদ সম্মেলনে মেলা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানান কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাসের ডেপুটি হাইকমিশনার তৌফিক হাসান। এসময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির পক্ষে মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ, মাজহারুল ইসলাম, কামরুল হাসান সায়ক, মেলা কমিটির পরিচালক মিজানুর রহমান, কাউন্সিলর বি এম জামাল হোসেন, মনছুর আহমেদ বিপ্লব কনস্যুলার (ভিসা) এবং উপহাইকমিশনের প্রথম সচিব(প্রেস) মোফাকখারুল ইকবাল প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাসের ডেপুটি হাইকমিশনার তৌফিক হাসান।

তিনি জানান, বইমেলায় প্রতিদিন আলোচনা সভা এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান দিয়ে সাজানো হয়েছে। বঙ্গবন্ধু বাংলা ভাষা ও বাংলাদেশ, বাংলা নাটক সৌহার্দ্যের সেতু সাহিত্যের দর্শন, দর্শনের সাহিত্য কিংবা চলচ্চিত্র ও সাহিত্য, শিশু সাহিত্য এবং প্রকাশনা: গ্রন্থ সেতু ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলোচনায় যোগ দেবেন বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় লেখক-সাহিত্যিকরা। কলকাতার এই আয়োজনে যোগ দিতে পারেন বাংলাদেশের প্রখ্যাত লেখিকা সেলিনা হোসেন এবং কথা সাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলন। বাংলাদেশের সংগীতশিল্পী ফকির আলমগীর আসতে পারেন সাংস্কৃতিক আয়োজনে অংশ নিতে। প্রতিদিন বেলা ২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা চলবে। তবে শনি ও রবিবার মেলা চলবে রাত ৯টা পর্যন্ত।

কলকাতার নন্দন চত্বরে গত চার বছর ধরে বাংলাদেশ বই মেলা অনুষ্ঠিত হলেও এবার চলমান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের কারণে সেখানে জায়গা হয়নি বই মেলার। তাছাড়া বাংলাদেশে বন্যা এবং রোহিঙ্গা সমস্যার কারণে নির্ধারিত সেপ্টেম্বর মাসে মেলার আয়োজন করতে পারেনি আয়োজক কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাস, রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতি।

Comments

The Daily Star  | English

Lifts at public hospitals: Horror abounds

Shipon Mia (not his real name) fears for his life throughout the hours he works as a liftman at a building of Sir Salimullah Medical College, commonly known as Mitford hospital, in the capital

1h ago